মহসীন শেখ :

কক্সবাজার শহরের কলাতলীতে পাওনা টাকা ফেরত চাওয়ায় কুলসুমা(৪১) নামের চার সন্তানের জননী বিধবা এক নারীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত নিজেই নিহত নারীর লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায়।
নিহত নারী এলাকার জমজম হ্যাচারীর পার্শ্ববর্তী মৃত নুরুল আবছারের স্ত্রী।

গতকাল শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে। হত্যায় অভিযুক্তরা একই এলাকার খলিলের পুত্র রকিমুল্লাহ এবং তার স্ত্রী তৈয়বা।
ঘটনায়  নিহত কুলসুমার ছেলে জাহেদুল ইসলাম মামুন জানান, গতকাল শুক্রবার সকালে তার মা এবং সে পাওনা বাবদ ২০ হাজার টাকা ফেরত চাইতে গেলে  রকিমুল্লাহ ও তার স্ত্রী তৈয়বা নিজ বাড়িতেই তাদেরকে গভীর রাত পর্যন্ত বেধে রেখে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে আজ শনিবার ভোররাতে খুনী  রকিমুল্লাহ নিজে তার মাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। তার মা কুলসুমাকে ডাক্তাররা মৃত  ঘোষণা করলে রকিমুল্লাহ পালিয়ে যায়।
বর্তমানে নিহতের লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে ময়না তদন্তের জন্য রাখা হয়েছে। আহত ছেলে জাহেদুল ইসলাম মামুনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

নিহতের শরীরে বেশ কিছু জখমের চিহ্ন রয়েছে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজার সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক।

তবে এ ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক অথবা মামলা দায়ের করা হয়নি বলে জানিয়েছেন নিহতের পরিবার।

এ ঘটনায় যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার ইনস্পেক্টর (অপারেশন) মাসুম খান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •