এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া :

কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চকরিয়া উপজেলার ইসলামনগর এলাকায় অবস্থিত চকরিয়া পৌরসভার ডাম্পিং ষ্টেশন থেকে অবশেষে ময়লা-আর্বজনা অপসারণ শুরু করা হয়েছে। নাগরিক জীবনে স্বস্থি ফেরাতে এবং সুন্দর পরিবেশ উপহার দিতে চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী এই উদ্যোগ নিয়েছেন। বৃহস্পতিবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ডাম্পিং ষ্টেশন থেকে ময়লা-আর্বজনা অপসারণ করা হচ্ছে। মেয়র আলমগীর চৌধুরী অনুকুলস্থলে উপস্থিত থেকে ময়লা-আর্বজনা অপসারণ তদারকি করছেন বলে নিশ্চিত করেছেন তাঁর পিএস শেফায়েত ওয়ারেসি।

জানা গেছে, ১৯৯৪ সালের ২৪ ডিসেম্বর প্রতিষ্ঠিত হয় চকরিয়া পৌরসভার প্রশাসনিক কার্যক্রম। প্রতিষ্ঠার পর থেকে একজন প্রশাসক এবং ধারাবাহিকভাবে দুইজন চেয়ারম্যান এবং একজন মেয়র নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব পালন শেষ করেন। কিন্তু অব্যবহিত এই সময়ের মধ্যে নানা কারণে পৌরসভার ময়লা-আবর্জনা ফেলার নির্ধারিত স্থান ঠিক করতে পারেনি।

এ অবস্থার প্রেক্ষিতে সেই আমল থেকে পৌরসভার ময়লা আবর্জনার ভাগাড় ফেলতে হতো পৌর বাসটার্মিনাল সংলগ্ন পতিত জমিতে। পরবর্তীতে সেখান থেকে স্থান সরিয়ে নেয়া হয় মাতামুহুরী সেতুর নিকটস্থ সরকারি খাসজমিতে।

দিনদিন সেখানে ময়লা আবর্জনার ভাগাড় জমতে থাকায় নাগরিক জীবনে স্বস্থি ফেরাতে সর্বশেষ ২০১৮ সালের ১৮ জুলাই বর্তমান মেয়র আলমগীর চৌধুরী নতুন গার্বেজ স্টেশন স্থাপনের জন্য (ময়লা আর্বজনা অপসারণে) পৌরসভার একেবারে বাইরে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে লোকালয় বিহীন জনপদ কৈয়ারবিল ইউনিয়নের ইসলাম নগরের চার একর খোলা জায়গার মালিকের সঙ্গে পৌরসভা কর্তৃপক্ষ চুক্তিবদ্ধ হন।

আগামী ১০ বছরের জন্য জায়গা ভাড়া নিয়ে স্থাপিত ডাম্পিং স্টেশন স্থাপনে এতদিন ফেলা হচ্ছিল পৌরসভার বিভিন্ন জনপদের ময়লা আবর্জনা। অবশ্য সম্প্রতি সময়ে ডাম্পিং স্টেশনে ময়লা আর্বজনার ভাগাড় জমে যাওয়ায় সেটি অপসারণে নতুন উদ্যোগ নিয়েছেন মেয়র আলমগীর চৌধুরী। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ডাম্পিং ষ্টেশন থেকে ময়লা-আর্বজনা অপসারণ করা হচ্ছে। মেয়র আলমগীর চৌধুরী অনুকুলস্থলে উপস্থিত থেকে ময়লা-আর্বজনা অপসারণ তদারকি করছেন বলে নিশ্চিত করেছেন তাঁর পিএস শেফায়েত ওয়ারেসি।

চকরিয়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক আলমগীর চৌধুরী বলেন, পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হবার প্রায় ২৪ বছর পর আমার আমলেই পৌরসভার ময়লা-আবর্জনা (গার্বেজ) ফেলার (ডাম্পিং) স্থান নির্ধারিত হয়েছে। আগে পৌরসভার আভ্যন্তরিন স্পটে ময়লা আর্বজনা ফেলা হলেও আমি নাগরিক জীবনে স্বস্থি ফেরাতে এবং সুন্দর পরিবেশ উপহার দিতে উদ্যোগ নিই।

এরই আলোকে ২০১৮ সালের ১৮ জুলাই জায়গার মালিকের সঙ্গে পৌরসভা কর্তৃপক্ষ চুক্তিবদ্ধ হয়ে ময়লা আর্বজনা অপসারণে পৌরসভার একেবারে বাইরে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে লোকালয় বিহীন জনপদ কৈয়ারবিল ইউনিয়নের ইসলাম নগরের চার একর খোলা নতুন গার্বেজ স্টেশন স্থাপন করি।

মেয়র আলমগীর চৌধুরী বলেন, সম্প্রতি ডাম্পিং স্টেশনে ময়লা আর্বজনার ভাগাড় জমে যাওয়ায় সেটি অপসারণে উদ্যোগ নিয়েছি। এরই অংশহিসেবে বৃহস্পতিবার থেকে ডাম্পিং ষ্টেশন থেকে ময়লা-আর্বজনা অপসারণ করা হচ্ছে। নাগরিক জীবনে স্বস্থি ফেরাতে এবং সুন্দর পরিবেশ উপহার দিতে অনুকুলস্থলে উপস্থিত থেকে আমি ময়লা-আর্বজনা অপসারণ তদারকি করছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •