এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিষেশ তহবিলের ১৮ লাখ টাকার শিক্ষাবৃত্তি, সাইকেল, পাওয়ার টিলার ও ত্রাণ সহায়তা পেয়েছেন চকরিয়া উপজেলার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর অন্তত ৩০০ পরিবার। ইতোমধ্যে চকরিয়া উপজেলা প্রশাসন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা (পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্যাতীত) কর্মসূচীর আওতায় চকরিয়া উপজেলাধীন হারবাং, বমুবিলছড়ি, সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়ন এবং চকরিয়া পৌরসভার মগবাজারস্থ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উপকরণ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রী ও বাই সাইকেল, তিনটি পাওয়ার টিলার এবং ত্রাণ বিতরণ করেছেন। একইভাবে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে প্রকল্পের আওতায় প্রাক-প্রাথমিক হতে উচ্চ শিক্ষায় অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের মধ্যে উপকরণ বিতরণ করা হয়।

চকরিয়া পৌরসভার মগবাজারস্থ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উপকরণ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রী ও বাই সাইকেল এবং ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন চকরিয়া-পেকুয়া (কক্সবাজার-১) আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম। বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ সামসুল তাবরীজ, চকরিয়া উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী কমল কান্তি পাল, পৌরসভার স্থানীয় ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ জিয়াবুল হক, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সম্বনয়ক মাস্টার মইং। এছাড়াও বিতরণ অনুষ্ঠানে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে বৃহস্পতিবার চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নে হত-দারিদ্র ৬০ টি ক্ষুদ্র নৃ- গোষ্ঠী পরিবারের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়। হারবাং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম মিরানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী শিক্ষার্থীদের হাতে শিক্ষা উপকরণ তুলে দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ শামসুল তাবরীজ।

চকরিয়া উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে, চকরিয়া উপজেলার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ তহবিল থেকে প্রাপ্ত ১৮ লাখ টাকার বিপরীতে শিক্ষাবৃত্তি, সাইকেল, পাওয়ার টিলার ও ত্রাণ সহায়তা পেয়েছেন উপজেলার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর অন্তত ৩০০ পরিবার।

তৎমধ্যে ২৩০ শিক্ষার্থীর মাঝে ৪ লাখ টাকার শিক্ষা উপবৃত্তি, হারবাং সাক্ষ্যমনি উচ্চ বিদ্যালয়ের উন্নয়নে ৫ লাখ টাকা, ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকার বিপরীতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর তিনটি কৃষক পরিবারের জন্য (মানিকপুর একটি, বমুবিলছড়ি দুইটি) পাওয়ার টিলার, শিক্ষার্থীদের জন্য ৩০টি বাই সাইকেল ও শিক্ষাসামগ্রী এবং ৬০টি পরিবারের জন্য খাদ্য সহায়তাসহ মোট ১৮ লাখ টাকার উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •