ইমরান হোসাইন, চকরিয়া :

কক্সবাজারের চকরিয়ায় অস্ত্রের মুখে স্বামীকে জিম্মি করে নববধূ ও এক কিশোরীকে গণধর্ষণে জড়িত সন্ত্রাসী মোঃ জয়নালকে (৩৮) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পরে তার দেখানো মতে দেশীয় তৈরি দুটি বন্দুক ও ৯ রাউন্ড তাজা কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।

রোববার (৬জুলাই) রাতে হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ রবইতলি ইউনিয়নের মোহছনিয়া কাটা স্টেশন থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। মোঃ জয়নাল একই এলাকার মৃত আব্দুল্লাহর ছেলে।

হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম বলেন, গণধর্ষণের ঘটনায় মোঃ জয়নাল জড়িত বলে ওই ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার এজাহারনামীয় আসামি মোঃ মোরশেদ প্রকাশ খুরশেদ আদালতে জবানবন্দি দেয়। এরপর থেকে আমরা মোঃ জয়নালকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাই। রোববার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে মোহছনিয়া কাটা স্টেশন থেকে তাকে আমরা গ্রেপ্তার করি। এসময় তাকে ফাঁড়িতে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে, একপর্যায়ে গণধর্ষণের ঘটনায় ব্যবহৃত অবৈধ অস্ত্র গুলো তার হেফাজতে আছে বলে স্বীকার করে। পরে রাত আড়াইটার দিকে তার বাড়ির বারান্দার মাটির নিচ থেকে অস্ত্র ও কার্তুজ গুলো উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চকরিয়া থানার ওসি হাবিবুর রহমান বলেন, গ্রেপ্তার মোঃ জয়নাল তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী। অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গণধর্ষণে জড়িত থাকা ও নিজ হেফাজতে অবৈধ অস্ত্র রাখার কথা স্বীকার করে সে আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছে। পরে আদালত তাকে কারাগারে পাঠিয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •