ফেসবুক কর্ণারঃ
অল্প দিনের মানুষের হায়াত। ৫০-৬০ বছরের জিন্দেগী। ভাল-মন্দ মিলিয়ে মানুষ। যার গুণের পরিমান বেশী সেই ভাল মানুষ। বেঁচে থাকার জন্য মানুষ কতই না যুদ্ধ করে চলছে এই জীবনে। রোগ-শোক,সুখ-দু:খ কতইনা কিছু মোকাবেলা করে চলছে। জীবন যুদ্ধে ঠিকে থাকার জন্য অনবরত যুদ্ধ করছে। মানুষ মানুষের জন্য। পৃথিবীতে এখন ও ভাল,উদার, উপকারী মানুষ আছে যারা মানুষকে প্রতিনিয়ত আলোর পথ দেখিয়ে যাচ্ছে।
মানুষ মানুষের কাছে ঋণী হয়। কিছু ঋণ শোধ করা যায়, আর কিছু ঋণ শোধ করা যায়না। রাগ,অভিমান,ক্ষোভ এই তিনটি জিনিস মানুষের মাঝে দূরত্ব তৈরী করে। আসলে দূরত্ব সমাধান নয়। সমাধান হলো ছাড় দেওয়া, উদার মানসিকতা প্রকাশ করা।
মিলেমিশে থাকার মত আনন্দ পৃথিবীতে আর কিছু নেই। কিন্তু এই আনন্দই হারিয়ে যাচ্ছে দিনদিন। কেউ কাউকে ছাড় দিতে রাজী নয়। মানসিক দূরত্ব বেড়ে চলছে প্রতিনিয়ত। শপথ হোক মানসিক দূরত্ব কমিয়ে শান্তি তৈরীর।
মানুষ নিজের দোষের কথা পর্যালোচনা করে কম বরং অভিমান এবং ক্ষোভটাকে বড় করে দেখে। যদি একবার নিজের দোষের কথা পর্যালোচনা করে দেখে তবে দেখা যাবে সব রাগ অভিমান মুছে গেছে। আসুন আমরা অন্যের দোষের পাশাপাশি নিজের দোষটাকে ও পর্যালোচনা করে দেখি। তাতে দূরত্ব কমে যাবে।

জাহাঙ্গীর আলমের ফেসবুক থেকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •