সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
পর্যটন শহর কক্সবাজারের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি বিদ্যাপীঠ দারুল উলুম লাইট হাউস মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও বিষয় ভিত্তিক বহু গ্রন্থ প্রণেতা বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন হাফেজ মাওলানা নেজাম উদ্দিন ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন।
বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) বেলা ২ টায় মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালী ইউনিয়নের মাঝের ডেইল গ্রামে তাহার নিজ বাড়িতে বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি মারা যান। তিনি মহেশখালী উপজেলার মাঝের ডেইল গ্রামের মরহুম হাসমত আলীর ছেলে।
মাওলানা নেজাম উদ্দিন দীর্ঘ দিন ধরে হার্টের রোগসহ বিভিন্ন বার্ধক্যজনিত রোগে আক্রান্ত ছিলেন।
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। তিনি ৩ ছেলে ৫ মেয়ে সন্তানের জনক।
বৃহস্পতিবার এশার নামাজের পর মুন্সীর ডেইল ঈদগাহ ময়দানে মরহুমের জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

খেলাফত মজলিসের শোক প্রকাশ
হাফেজ মাওলানা নেজাম উদ্দিনের ইন্তেকালে শোক প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন- খেলাফত মজলিসের কক্সবাজার জেলা সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা মুফতি আবু মূসা ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মাওলানা হাফেজ নুরল্লাহ জিহাদী।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, ১৯৮৩ সালে লাইট হাউজ মাদ্রাসা করে সুনামের পরিচালনা করে আসছিলেন, বার্ধক্যজনিত কারণে অসুস্থ হয়ে পড়লে, মাদ্রাসা পরিচালনার দায়িত্ব অন্য জনের হাতে ছেড়ে দেন।

তারা আরো বলেন, দারুল উলুম লাইট হাউস মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও বিষয় ভিত্তিক বহু গ্রন্থ প্রণেতা বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন হাফেজ মাওলানা নেজাম উদ্দিন একজন প্রথিতযশা আলেমে দীন ছিলেন। ইলমে নববীর বিস্তার ও দ্বীন প্রতিষ্ঠার কাজে তিনি নিয়োজিত ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে সৃষ্ট শূণ্যতা পূরণ হবার নয়।

যৌথ শোক বাণীতে নেতৃদ্বয় মরহুম হাফেজ মাওলানা নেজাম উদ্দিনের রুহের মাগফিরাত কামনা করে মহান আল্লাহর দরবারে দু’য়া করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদেও প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •