মোঃ রাসেল ইসলাম,বেনাপোল প্রতিনিধি:

করোনা আক্রান্ত মনে করে বৃদ্ধ পিতাকে তার ছেলেরা বেনাপোল রেল লাইনের পাশে ফেলে যায় বলে অভিযোগ উঠেছে। অসহায় বৃদ্ধ ব্যক্তি রেল লাইনের পাশে পড়ে আছে। এসময় সংবাদ পেয়ে বেনাপোল দিঘিরপাড় ৫ নং ওয়ার্ডের কমিশনার মোঃ রাশেদ আলী,বেনাপোল পোর্ট থানার পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় বৃদ্ধ ব্যক্তিকে উদ্ধার করে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।উদ্ধারকৃত বৃদ্ধ শহিদুল ইসলাম পাবনা জেলার কৈজুড়ি গ্রামের বাহাদুর বেপারির ছেলে।

বেনাপোল পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলার রাশেদ আলী জানান, স্থানীয়রা ওই বৃদ্ধকে রেল লাইনের জঙ্গলে দেখে তাকে খবর দেয়। তারপর সে নিজে ঘটনাস্থলে এসে বৃদ্ধকে খাওয়ার ব্যবস্থা ও মাস্কের ব্যবস্থা করে পুলিশে খবর দেয়। এরপর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিয়ে সকলের প্রচ্ষ্টোয় বৃদ্ধকে রেল লাইনের পাশের জঙ্গল থেকে উদ্ধার করে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মামুন খান সিবিএন বেনাপোল প্রতিনিধিকে বলেন, বৃদ্ধের মানসিক সমস্যা রয়েছে। সে এক এক সময় এক এক রকম কথা বলছে। কোন সময় বলছে ছেলেরা ফেলে গিয়েছে। আবার বলছে আমি নিজে এসেছি।

বেনাপোল ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ তৌহিদুর রহমান তৌহিদ জানান, ওই বৃদ্ধ ব্যক্তির মানসিক সমস্যা রয়েছে। সে করোনা রোগি কি না তা পরীক্ষা নিরীক্ষা ছাড়া বলা যাবে না। তাকে শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মন্ডলের সহযোগিতায় শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •