বিদেশ ডেস্ক:
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দাবি করেছেন, সম্প্রতি লাদাখ সীমান্তে চীনা সেনাদের যথাযথ জবাব দিয়েছে ভারতীয় সেনারা। যারাই ভারতের ভূখণ্ড দখলের চেষ্টা করবে, তাদের কড়া জবাব দেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ার করেছেন তিনি। রবিবার (২৮ জুন) মান কি বাত অনুষ্ঠানে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে মোদি এ হুঁশিয়ারি দেন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

এক মাসেরও বেশি সময় ধরে লাদাখ সীমান্তে ভারত ও চীনা সেনাদের মধ্যে উত্তেজনার পর গত ১৫ জুন (সোমবার) উভয় পক্ষ সংঘাতে জড়ায়। এতে ভারতের ২০ সেনা নিহত ও অপর ৭৬ জন আহত হয়। ভারত দাবি করে আসছে, চীনের অন্তত ৪৫ জন হতাহত হয়েছে। তবে চীন সরকারিভাবে কোনও হতাহতের খবর জানায়নি। দুই দেশই পরস্পরের বিরুদ্ধে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা অতিক্রম করার অভিযোগ এনেছে।

চীন-ভারত সাম্প্রতিক সংঘর্ষ নিয়ে শুরু থেকেই নীরবতা পালন করে আসছিলেন মোদি। এ নিয়ে বিরোধী দলগুলোর তোপের মুখেও পড়েন তিনি। এরমধ্যেই রবিবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

মোদি বলেন, ‘লাদাখে যারা আমাদের চ্যালেঞ্জ করেছে তাদের যথাযথ জবাব দেওয়া হয়েছে। আমাদের বীরেরা সর্বোচ্চ পর্যায়ের আত্মোৎসর্গ করেছে, তবু শত্রুপক্ষকে প্রভাব খাটাতে দেয়নি। তাদের এ হারানোর যন্ত্রণা আমরা অনুভব করি। তাদের বীরত্ব ভারতের শক্তি।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ১৫ জুন যে ২০ সেনা সদস্য গালওয়ান উপত্যকায় চীনা সেনাদের হাত থেকে ভারতের সীমান্তকে সুরক্ষা দিতে গিয়ে জীবন উৎসর্গ করেছেন, তাদের দেশের মানুষ কখনও ভুলবে না।

চীনের নাম উল্লেখ না করে মোদি হুঁশিয়ার করেন, ‘যারাই ভারতের এলাকা দখলের চেষ্টা করবে, তারা যেন কড়া প্রত্যাঘাতের অপেক্ষায় থাকে। কারণ, ভারত এই চেষ্টার কঠিন জবাব দেবে। কোনোভাবেই সীমান্তে জওয়ানদের বলিদানকে ব্যর্থ হতে দেবে না ভারত।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •