দৈনিক শিক্ষা : দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে গত ১৭ মার্চ থেকে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং কোচিং বন্ধ রয়েছে। এ অবস্থায় সংসদ টিভিতে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের ক্লাস চলছে। গত এপ্রিল মাসের মাঝামাঝি সব কলেজকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহার করে স্নাতক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ক্লাস নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। কলেজগুলোর অনলাইন ক্লাসের তথ্য চেয়েছে শিক্ষা অধিদপ্তর। প্রতি মাসের ১ তারিখ ও ১৬ তারিখ দুইবার কলেজের অনলাইন ক্লাসের তথ্য অধিদপ্তরে পাঠাতে বলা হয়েছে আঞ্চলিক পরিচালকদের।

বুধবার (২৪ জুন) মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এ-সংক্রান্ত চিঠি আঞ্চলিক পরিচালকদের কাছে পাঠানো হয়।

অনলাইনে ক্লাসের তথ্য পাঠাতে নির্ধারিত দুটি ছক পাঠানো হয়েছে আঞ্চলিক পরিচালকদের কাছে। এগুলোর একটিতে প্রতিষ্ঠানের প্রধান এবং অপরটিতে পরিচালক তথ্য পূরণ করবেন।

ছকে কোন কোন পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের অনলাইন ক্লাস নেয়া হচ্ছে তা জানতে চাওয়া হয়েছে। আর ক্লাসের রুটিন প্রকাশ করা হয়েছে কিনা সে তথ্য দিতে হবে। এছাড়া অনলাইনে ক্লাস শুরুর তারিখ, বিভাগভিত্তিক ক্লাসের সংখ্যা, অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থী সংখ্যা ও শতকরা হার, অনলাইন ক্লাস পরিচালনার চ্যালেঞ্জগুলো এবং তার সমাধানের উপায় উল্লেখ করতে হবে ছকে। তথ্য পূরণ করার ছক প্রতি মাসের ১ ও ১৬ তারিখ ইমেইলে অধিদপ্তরে পাঠাতে হবে।

সরকারি কলেজগুলো অনলাইন ক্লাসের তথ্য [email protected] এবং বেসরকারি ও সদ্য সরকারি কত কলেজগুলোর অনলাইন ক্লাসের তথ্য [email protected] ঠিকানায় পাঠাতে বলা হয়েছে আঞ্চলিক পরিচালকদের।

গত এপ্রিল মাসের মাঝামাঝি সব কলেজকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহার করে স্নাতক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ক্লাস নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। কিন্তু সে নির্দেশনা মানেনি অনেক কলেজ। তাই সব কলেজের শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ক্লাস করা নিশ্চিত করতে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে বলে সম্প্রতি জানিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর।

অধিদপ্তর বলছে, নির্দেশনা দেয়ার পরেও অনলাইনে ক্লাস শুরু না করা প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন বিরোধী। তাই সব কলেজকে আবারও অনলাইনে ক্লাস নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। আর ক্লাসগুলো নির্ধারিত জিমেইল আইডিতে আপলোড করতে বলা হয়েছে। নির্বাচিত ক্লাসগুলো শিক্ষা অধিদপ্তরের ইউটিউব চ্যানেলে প্রচারের করা হবে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •