লোহাগাড়া প্রতিনিধি:
লোহাগাড়া উপজেলার পুটিবিলা ৫ ও ৭ নং ওয়ার্ডে আশ্রয়ন প্রকল্পের জায়গা দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দা রমজান আলী গত ২২ জুন লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযুক্তরা হলেন, উপজেলার পুটিবিলা গৌড়স্থান লাকড়ি পাড়া এলাকার মৃত কালু মিয়ার ছেলে মো: ইদ্রিস কোম্পানী (৫৫) ও তার ছেলে মো: সজিব (২৬)।

অভিযোগে প্রকাশ, পুটিবিলা আশ্রয়ন প্রকল্পে ১০ পরিবার সরকারি নির্দেশনা মতে ২০/২৫ বছর ধরে স্বপরিবার বসবাস করে আসছে। বিবাদীরা উক্ত আশ্রয়ন প্রকল্পের জায়গা লোভে পড়ে ১০ পরিবারের জায়গা দখল করার চেষ্টা ও জায়গায় বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কেটে নিয়ে গিয়ে গত ২১ জুন নতুন করে গাছের চারা রোপন করে বেড়া দিয়ে দেয়। চারা রোপনে বাঁধা দিলে ভয়ভীতি ও খুন জখমের হুমকি দেয়।

আশ্রয়ন প্রবল্পের বাসিন্দা রাজিয়া খাতুন বলেন, ইদ্রিস কোম্পানী শক্তিশালি ব্যক্তি। তার বিরুদ্ধে কেউ কথা বললে প্রাণে মেরে ফেলবে। তাই তারাও চুপ রয়েছে। তাদের জায়গা জোর করে দখল নিয়ে নিয়েছে। দখলে নিয়েছে সরকারি বরাদ্ধে বসানো টিউবওয়েল ও টয়লেট। তিনি আরো বলেন, যেকোন সময় আশ্রয়ন প্রকল্পের বাড়িসহ দখল করে নিয়ে নিবে। তিনি সর্ব মহলের সহযোগিতা কামনা করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক, জৈনক এক ব্যক্তি বলেন, পুটিবিলা আশ্রয় প্রকল্পে ১২০ পরিবার রয়েছে। তাদের মধ্যে ১০ পরিবারের জায়গা দখল করে একপ্রকার ইদ্রিস কোম্পানী জিম্মি করে রেখেছে।

অভিযোগকারী রমজান অালী বলেন, আমরা অসহায় বলে সরকার আমাদের আশোয় দিয়েছে। সরকার বাড়ি ভিটার বাইরে দেওয়া জায়গা জোর করে দখল করে নিয়েছে ইদ্রিস কোম্পানী। বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কেটেও নিয়ে গেছে। অভিযোগ দেওয়ায় উল্টো হুমকি দিচ্ছে বলেও জানান তিনি।

অপর দিকে অভিযুক্ত মো: ইদ্রিস কোম্পানী বলেন, পুটিবিলা আশ্রয়ন প্রকল্প আমার দাদার দখলীয় খাস সম্পত্তি। সরকার চাইছে বিদায় দিয়ে দিয়েছি। আমার দীর্ঘ দিনের দখলীয় জায়গায় আমি নিজেই পরিস্কার করে গিছের চারার রোপন করেছি। এতের দোষের কি আছে। এটিতো আশ্রয়ন প্রকল্পের লোকেরায় জানেন।

বিষয়টি তদন্ত করার জন্য লোহাগাড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)কে দায়িত্ব দেন ইউএনও।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান হাজি মোহাম্মদ ইউনুছ বলেন, ধনীরা সবসময় গরীবদের জিম্মি করে রাখে। ঠিক তেমনি অাশ্রয়ন প্রকল্পের লোকেরাও তেমন।

বুধবার সকালে সরেজমিন পরিদর্শণ করেন চুনতি ইউনিয়ন ভুমি অফিসের সহকারি শরফুউদ্দিন।

তিনি বলেন, এসিল্যান্ডে ম্যাডামের নির্দেশে পুটিবিলা আশ্রয়ন প্রকল্পে জায়গা দখল সরজমিন পরিদর্শণ করি।

লোহাগাড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নীলুফা ইয়াছমিন চৌধুরী বলেন, পুটিবিলা আশ্রয়ন প্রকল্পে ১০ পরিবারের জায়গা দখলেন অভিযোগটি তদন্ত চলছে। তদন্ত স্বাপক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •