হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর:
সংস্কারের অভাবে দীর্ঘদিন যবাৎ চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়া গ্রামীন সড়ক স্বেচ্ছাশ্রমে মেরামত করে মানবিক চেতনাবোধ ও সামাজিক মূল্যবোধের বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে রামু উপজেলার রাজারকুল ইউনিয়নের অন্যতম সমাজ উন্নয়নমূলক, স্বেচ্ছাসেবী ও অরাজনৈতিক সংগঠন ওলামা পরিষদ রাজারকুল। সংগঠনের সদস্যদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে ২২ ও ২৩ জুন দুইদিনব্যাপী এ সংস্কার কাজ পরিচালিত হয়। ওলামা পরিষদের তারুণ্যদীপ্ত সদস্যরা নিজেরা কুদাল, ঝুড়ি, বস্তা নিয়ে বালি ভরাট ও বহন করে এলাকার অবহেলিত সড়কসমূহ সংস্কার করেন। সংগঠনটির উদ্যোগে দুইদিনে রাজারকুল নয়াপাড়া-দেয়াংপাড়া (৫-৬নং ওয়ার্ড) সংযোগস্থলে দীর্ঘ ১.৫ কিলোমিটার রাস্তা মেরামত করা হয়। সেই সাথে রাজারকুল ইউনিয়ন পরিষদের কুলঘেষে বয়ে চলা আজিজুল উলুম মাদ্রাসা সড়কসহ আরও একটি অভ্যন্তরীণ সড়ক সংস্কার করেন।
এ বিষয়ে সংগঠনের উপদেষ্টা আলহাজ্ব কারী নূরুল আমিন বলেন, রাজারকুল নয়াপাড়া-দেয়াংপাড়া সংযোগস্থলে জনসাধারণের চলাচলের একমাত্র সড়কটিতে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় নানা শ্রেণী-পেশার প্রায় পাঁচ হাজার মানুষের দূর্ভোগের শিকার হচ্ছে। অনেক রোগী ঠিক মতো চিকিৎসা সহায়তার জন্য পৌঁছতে ব্যর্থ হচ্ছে। অনেক গাড়ি উল্টে গিয়ে নদীতে পড়ে যাওয়ার উপক্রম। জরাজীর্ণ এ সড়কে অনেকে দূর্ঘটনা কবলিত হয়ে গুরুতর আহত হয়েছে। অনেকে ইউনিয়ন পরিষদে বিভিন্ন প্রয়োজনে আসতেও চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। এমতাবস্থায় মানবসেবা করে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন ও জনগণের দূর্ভোগ লাঘবের উদ্দেশ্যে ওলামা পরিষদ রাজারকুলের পক্ষ থেকে আমরা স্বেচ্ছাশ্রমে সড়ক সংস্কারের উদ্যোগ গ্রহন করি। আলহামদুলিল্লাহ সদস্যদের আন্তরিক প্রচেষ্টা ও শুভানুধ্যায়ীদের সহযোগিতায় প্রথমবারের মত এ উদ্যোগ বাস্তবায়ন হয়েছে। আমরা যাতে এ মানবিক তৎপরতা অব্যাহত রাখতে পারি সে জন্য সকলের দু’আ চাই।
উপদেষ্টা হাফেজ মাওলানা কারী নূরুল আমীনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে স্বেচ্ছাশ্রমে সড়ক সংস্কার কাজে অংশ নেন, সংগঠনের আমীর মাওলানা মুহাম্মদ দিদারুল আলম, কোষাধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ আব্দুল করিম, সদস্য মাওলানা জায়নুল আবেদীন, মাওলানা আব্দুল্লাহ, হাফেজ সৈয়দ আলম, মাওলানা কারী মিজানুর রহমান, মাওলানা ইসমাঈল, হাফেজ মাওলানা রফিকুল ইসলাম, হাফেজ মাওলানা নূরুল আলম, মাওলানা মুফতি আব্দুল খালেক, হাফেজ মাওলানা আব্দুল্লাহ্, হাফেজ তারেকুল ইসলাম, হাফেজ এহসানুল হক, মুহাম্মদ অলি উল্লাহ আরজু, মুহাম্মদ তানজিমুল হক, হাফেজ তৈয়ব উল্লাহ, হাফেজ মিসবাহ উদ্দিন, হাফেজ মুহাম্মদ শাহেদ, হাফেজ আব্বাস উদ্দীন, হাফেজ হেলাল উদ্দিন, হাফেজ মুহাম্মদ জাহেদ।
এসময় সড়ক সংস্কার কাজ পরিদর্শনে গিয়ে মহতি উদ্যোগে নিবেদিতদের অনুপ্রাণিত করেন, রামু ছিকলঘাট ইকরা মডেল একাডেমীর পরিচালক মাওলানা আব্দুল মান্নান, রামু লেখক ফোরাম ও লম্বরীপাড়া আলোর দিশারী যুবপরিষদের সভাপতি হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর। তাঁরা বলেন, ওলামা পরিষদের এ মানবিক উদ্যোগের ফলে এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দূর্ভোগ কিছুটা হলেও লাঘব হবে। এরকম জনহিতকর কাজে স্বেচ্ছাশ্রমে ওলামায়েকেরামের যুগান্তকারী পদক্ষেপ অনুসরণীয় দৃষ্টান্ত। তারা গ্রামের অবহেলিত সড়কগুলোর যথাযথভাবে পূণঃনির্মাণ ও সংস্কারে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহন করার জন্য জনপ্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট মহলের প্রতি জোর দাবি জানান।
এলাকাবাসীর পক্ষে প্রবীণ ব্যক্তি হাজী আবুল হোসাইন ও যুবসমাজের প্রতিনিধি শামসুল আলম বলেন, আমাদের বৃহত্তর এলাকার জরাজীর্ণ সড়কের উন্নয়নে চেয়ারম্যান ও মেম্বারগণ দীর্ঘদিন যাবৎ কোন ধরনের কার্যকরী পদক্ষেপ নেয়নি। এমতাবস্থায় জনসাধারণ ও মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের চরম ভোগান্তির অবসানকল্পে রাজারকুলের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ওলামা পরিষদ’র মহতি উদ্যোগ খুবই প্রশংসনীয়। তাঁরা উদ্যোগী আলেম সমাজের প্রতি ধন্যবাদ জানান।
এ মানবিক উদ্যোগে সদস্যগণ ছাড়াও শুভাকাঙ্ক্ষীদের মধ্যে শামিল হন, মুহাম্মদ শামসুল আলম, মাওলানা কারী আব্দুল খালেক, কারী মুহাম্মদ সালাহ উদ্দিন, নবী হোসাইন, আব্দুর রহমান, মুহাম্মদ সৈয়দ আলম।