আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ার ঘটনায় আবারও চীনকে দায়ী করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিশ্বজুড়ে সাড়ে চার লাখের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নেয়া এই ভাইরাসকে ‘কুং ফ্লু’ নামে নতুন নামকরণ করেছেন তিনি। বিশ্বের দুই শতাধিক দেশে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৫ লাখ ছাড়িয়েছে।

আগামী নভেম্বরে দেশটির প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রথমবারের মতো শনিবার ওকলাহোমার তুলসা এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেছেন ট্রাম্প। এই সমাবেশে তিনি বলেন, কোভিড-১৯ এমন একটি রোগ; ইতিহাসের অন্যান্য রোগের চেয়ে যার বেশি নাম রয়েছে।

ট্রাম্প বলেন, আমি এটার নাম দিতে পারি কুং ফ্লু। আমি এটার ১৯টি সংস্করণের নাম দিতে পারি। অনেকেই এটাকে ভাইরাস বলেন। অনেকেই ফ্লু বলেন। পার্থক্য কি? আমি মনে করি- আমাদের কাছে এর নামের ১৯ অথবা ২০টি সংস্করণ রয়েছে।

কুং ফু চাইনিজ মার্শাল আর্ট হিসেবে বিশ্বজুড়ে পরিচিত। সেটি বিবেচনা করে এবং ভাইরাসটির উৎপত্তি চীনে হওয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট করোনাভাইরাসকে কুং ফ্লু নামে ডাকলেন। এছাড়া বক্তৃতার সময় মার্কিন এই প্রেসিডেন্ট কোভিড-১৯ কে চীনা ভাইরাস বলেও মন্তব্য করেন।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টার বলছে, যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে মারা গেছেন এক লাখ ১৯ হাজারের বেশি মানুষ এবং আক্রান্ত হয়েছেন ২২ লাখের বেশি।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে এই ভাইরাসটির উৎপত্তি হয়। তারপর থেকে বিশ্বের দুই শতাধিক দেশে এই ভাইরাসে সংক্রমণ মৃত্যু প্রতিনিয়ত লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।

বিশ্ব অর্থনীতি লণ্ডভণ্ড করে দেয়া এই ভাইরাস আরও তীব্র অর্থনৈতিক মন্দা ডেকে আনছে বলে সতর্ক করে দিয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিজ্ঞানীরা করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এখন পর্যন্ত প্রায় এক ডজন ভ্যাকসিন পরীক্ষার দ্বিতীয় ধাপ পেরিয়ে তৃতীয় ধাপে রয়েছে।

আগামী নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। পুনরায় নির্বাচিত হওয়ার লক্ষ্যে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ডেমোক্রেট দলীয় সাবেক ভাইস-প্রেসিডেন্ট ৭৭ বছর বয়সী জো বাইডেনের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •