অনলাইন ডেস্ক : সূর্যগ্রহণের সঙ্গে সঙ্গেই করোনাভাইরাস বিদায় নেবে বলে দাবি করেছেন ভারতের চেন্নাইয়ের বিজ্ঞানী ড. কেএল সুন্দর কৃষ্ণা।

তার দাবি, করোনাভাইরাস ও সূর্যগ্রহণের মধ্যে সংযোগ রয়েছে।

ডা. কৃষ্ণা তার এই উদ্ভট বিশ্বাসের কথা সংবাদ সংস্থা এনআইয়ের কাছে প্রকাশ করেছেন বলে জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস।

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, চেন্নাইয়ের নিউক্লিয়ার অ্যান্ড আর্থ সায়েনটিস্ট ড. কৃষ্ণা দাবি করেন, কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাব এবং গত বছরের ২৬ ডিসেম্বরে সূর্যগ্রহণের মধ্যে সংযোগ রয়েছে।

তার মতে, ওইদিন সূর্যগ্রহণের পর থেকেই শুরু হয় করোনার প্রাদুর্ভাব। অর্থাৎ এই দুয়ের মধ্যে একটা যোগসূত্র রয়েছে।

সৌর মণ্ডলের বিন্যাসে এই দুইয়ের এক গভীর যোগসূত্র আছে বলেই ২৬ ডিসেম্বর করোনার প্রাদূর্ভাব শুরু হয় এবং ২১ জুনে শেষ হবে বলেও দাবি ড. কৃষ্ণার।

তিনি বলেন, চীনে প্রথম করোনার মিউটেশন লক্ষ্য করা গেছে, যা সাধারণ প্রক্রিয়া। যদিও এই নিয়ে কোনো নির্দিষ্ট প্রমাণ নেই। তবে এই মিউটেশন জেনে বুঝেও করা হতে পারে বলে কিছুটা অভিযোগেরও সুর এই বিজ্ঞানীর।

তার দাবি, এটি একটি মহাজাগতিক প্রক্রিয়া, সূর্যের আলো এবং গ্রহণের ফলে যা সাধারণভাবেই সেরে যেতে পারে। তাই আজকের সূর্যগ্রহণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এর ফলে অনেকটা কমে যেতে পারে করোনার প্রকোপ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •