সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
খুরুশকুল ইউনিয়ন বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোজাহারুল হক মেম্বারের ১৩ তম মৃত্যু বার্ষিকী আজ।
২০০৭ সালের এই দিনে (২০ জুন) তিনি নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেন। ফকিরপাড়ার মরহুম হাজী নাজির আলী সিকদারের ৭ সাত পুত্র সন্তানের মধ্যে চতুর্থ ছিলেন তিনি ।

১৯৮৩ সালে খুরুশস্কুল ইউনিয়ন পরিষদের বৃহত্তর ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচিত হয়ে একজন ন্যায়বিচারক হিসেবে তিনি এলাকার মানুষের নিকট এখনো সুপরিচিত।

শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান (বীর উত্তম)-এর নীতি ও আদর্শকে অনুসরণ করে ১৯৮৪ সালে খুরুশকুল ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি হিসেবে বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ রাজনৈতিক দল বিএনপির সঙ্গে পথচলা শুরু করেন মরহুম মোজাহারুল হক মেম্বার। খুরুশকুল ইউনিয়ন বিএনপি-কে শক্তিশালী ও গতিশীল করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে গেছেন।
এছাড়া তিনি বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী আন্দোলনসহ গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ের প্রতিটি আন্দোলনের অগ্রভাগে ছিলেন।

মরহুম মোজাহেরুল হক মেম্বারের চাচাতো ভাই সদর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি ও খুরুশকুল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সুবেদার মেজর (অবঃ) আব্দুল মাবুদ জানান, আমার বড় ভাই মোজাহেরুল হক মেম্বার বিএনপির দায়িত্ব পালন ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে নানা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সততার সাথে পালন করেছেন। জীবদ্দশায় খুরুশকুলের উন্নয়নে রেখেছেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।

তিনি জানান, ১৯৯৮ সালে বিএনপি সরকারের আমলে আমরা খুরুশকুল ইউনিয়নকে শহরের সাথে সংযুক্ত করতে মাঝেরঘাট ব্রিজের দাবি নিয়ে খুরুশকুল হাইস্কুল মাটে একটি বিশাল জনসমাবেশ করেছিলাম। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন তৎকালীন যোগাযোগমন্ত্রী অলি আহমদ (বীর বিক্রম)। সেই বিশাল সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন তৎকালীন ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি শ্রদ্ধেয় বড় ভাই মোজাহারুল হক মেম্বার।

তিনি সহজ সরল সাদা মনের মানুষ ছিলেন, সবার বিপদে আপদে পাশে থাকতেন, মৃত্যুর আগ মুহূর্তেও তিনি বিএনপি’র একজন সক্রিয় কর্মী ছিলেন। উনার শূন্যতা সহজেই পূরন হবে না। দলের জন্য ওনার ত্যাগ ও ভালবাসা স্থানীয় বিএনপি নেতাকর্মীদেরকে সবসময় অনুপ্রাণিত করবে।

মরহুম বিএনপি নেতা মোজাহারুল হক মেম্বারের একমাত্র সন্তান কাতার প্রবাসী সালাউদ্দিন জানান, আমার মরহুম বাবার আজ ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০০৭ সালের ২০ জুন আমার বাবা দুনিয়া থেকে চির বিদায় নিয়েছিলেন। আমার মরহুম বাবার জন্য সবাই দোয়া করবেন। মহান আল্লাহ যেন আমার বাবাকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসিব করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •