এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া :

পেকুয়া উপজেলায় ডাব্লিউএফপি’ র অর্থায়নে এসএআরপিভি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় চকরিয়া পেকুয়া আসনের সাংসদ জাফর আলম বিএ( অনার্স) এমএ’র সহায়তায় ৭ ইউনিয়নে ৫ হাজার ৫ শত পরিবারের মাঝে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে সুন্দরভাবে খাদ্য সহায়তা বিতরণের প্রথম দফা শেষ হয়েছে।

শুক্রবার ১৯জুন পেকুয়া সদর ইউনিয়নে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত এসএআরপিভি’র কর্মীরা সারাদিন উপকারভোগীদের মাঝে এই খাদ্য সহায়তা বিতরণ করেন। শুক্রবার পেকুয়া সদর ইউনিয়নে ১৫ শত ৭৫ পরিবারে এ খাদ্য সহায়তা বিতরণ করা হয়েছে। এদিন পেকুয়া সদরে খাদ্য সহায়তা বিতরণ পরিদর্শণ করেন এসএআরপিভি” র চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিচালক কাজী মাকসুদুল আলম মুহিত ও কক্সবাজারের মহসিন হোসেন মানিক।

পেকুয়া সদরে বিতরণের সময় সার্বিক সহযোগিতা করেন পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম। বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন এসএআরপিভি’র ত্রাণ সমন্বয়ক ইয়াসমিন সুলতানা, জিয়া উদ্দীন, আক্তার কামাল মিরাজ। পেকুয়া সদর ইউপি সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যথাক্রমে মোহাম্মদ ইসমাইল, জিয়াবুল হক, নুরুল হক, শাহনেওয়াজ আজাদ, রিদুয়ানুল হক, বুলু আরা, ফরিদা ইয়াছমিন, আবু ছালেক। বিভিন্ন কেন্দ্রে আওয়ামীলীগ নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা বশির আলম, খলিলুর রহমান, আবু তালেব, সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আজম খান, ফোরকান ইলাহী, শ্রমিকলীগের সভাপতি নুরুল আবছার, সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম বাবুল, সাংবাদিক শাখাওয়াত হোসেন সুজন, ওয়ার্ড় আওয়ামীলীগে মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আবুল কালাম, আবদুল কাইয়ুম, আরমান চৌধুরী, নাছির উদ্দীন, আবদুল কাদের, মো সোহেল, দিদার, মামুন, নাছির উদ্দীন মাঝি, কালু মাঝি, ওসমান, কাইছার, শহীদুল ইসলাম, আলী আহাম্মদ। এদিন চকরিয়ার বদরখালীতেও এ খাদ্য সহায়তা বিতরণ করা হয়েছে।

এসএআরপিভি’র আঞ্চলিক পরিচালক কাজী মাকসুদুল আলম মুহিত বলেন, এ কর্মসুচীর আওতায় করোনা সংকটে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় নিম্ন আয়ের চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলার ২২ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার বিতরণের মাধ্যমে চকরিয়া ও পেকুয়ায় প্রাথমিক পর্যায়ের খাদ্য সহায়তা প্রদান শেষ হয়েছে। যারা এবারের খাদ্য সহায়তা পেয়েছেন তারা আরও তিন কিস্তিতে ৪ হাজার ৫ শত নগদ টাকা ও ৩০ কেজি করে চাল পাবেন।

তিনি বলেন, এই কর্মসূচীর আওতায় এসেছে চকরিয়া উপজেলার ১টি পৌরসভা ও ১৮ ইউনিয়নের ১৬ হাজার ৫শত পরিবার। পেকুয়া উপজেলা ৭ ইউনিয়নের ৫ হাজার ৫ শত পরিবার। চার মাসে চার কিস্তিতে চকরিয়ার ১৬ হাজার ৫শত পরিবারের প্রতি পরিবার পাবেন ৬০ কেজি ভাল মানের চাল, ৫ কেজি হাই এনার্জি বিস্কুট ও নগদ ৪ হাজার ৫শত করে টাকা। পেকুয়ায় ৫ হাজার ৫শত পরিবারের প্রতি পরিবার পাবেন ৬০ কেজি ভাল মানের চাল ও নগদ ৪ হাজার ৫শত করে টাকা। পেকুয়ায় ডাব্লিউএফপি’র পুষ্টি কার্যক্রমে আগে থেকে হাই এনার্জি বিস্কুট দেওয়া হচ্ছে। তাই এবারের খাদ্য সহায়তা বিতরণে এই বিস্কুট দেওয়া হচ্ছেনা।#

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •