হিরা মণি

প্রকাশ: ১৯ জুন, ২০২০ ০৮:৪১ , আপডেট: ১৯ জুন, ২০২০ ০৮:৪১

পড়া যাবে: [rt_reading_time] মিনিটে


এম.শাহীনূর
__________________
আমি হিরা মণি বলছি
লক্ষ্মীপুরের নির্জন বটতলা থেকে
আমি এক হতদরিদ্র বলছি
দরিদ্রের অট্টালিকা কুটির থেকে।

বাবা, তোমার মেয়ের আজ বড্ড কষ্ট
নরপশুরা করেছে আমায় সর্বস্বান্ত
কেড়ে নিয়েছে আমার কন্ঠস্বর, করেছে পথভ্রষ্ট ।

বাবা, সেদিন পশুশাবক আমায় খুব মেরেছে
করতে পারিনি তার প্রতিবাদ
জানোয়ারের দল কুঁড়ে কুঁড়ে খেয়েছে
শুনতে পাইনি কেউ তার আর্তনাদ।

বাবা, তোমার ক্যান্সারে শুকাইল নয়নের বারি
সেদিন কাঁদতে গিয়ে আসল না চোখের এইটুকু পানি।

ভাঙা কণ্ঠে সেদিন করেছিলাম চিৎকার
লোভী সমাজ শুনেও করল তাহা প্রত্যাহার।

ও বাবা! যদি কভু স্রষ্টা বাঁচায় তোমায়
লোভী সমাজ থেকে লুকিয়ে গিয়া
বাস করিও বনের অন্তরায়;
এই সমাজ সম্পত্তি, টাকা-পয়সায় লিপ্ত
অর্থের মোহে তাঁরা আজ অন্ধ।

ওগো আমার গর্ভধারিণী মা!
তোমার মেয়ে হীরা আজ বড্ড নষ্টা
পশুরা করেছে আমায় অন্তঃসত্ত্বা।

হে বঙ্গ সন্তান! মাপ করো আমায়
যদিওবা থাকে কোন পাপ-অন্যায়।

ওহে বঙ্গদেশের স্বার্থপর লোক!
শুনতে কী পাও আমার শোক?
তোমরা বড়ই নির্লজ্জ
রক্তে-অস্থিতে টাকা-পয়সায় আবদ্ধ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •