মো. নুরুল করিম আরমান, লামা:

বান্দরবানের লামা উপজেলায় দিন দিন বাড়ছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস রোগে আক্রান্তের সংখ্যা। প্রতিদিনই উপজেলার কোন না কোন স্থানে নতুন করে এ রোগে আক্রান্তের খবর পাওয়া যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় আলা উদ্দিন (৩২) নামের এক যুবকের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পজেটিভ এসেছে, অর্থাৎ তার শরীরে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। বুধবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক মোহাম্মদ রোবীন। তিনি জানান, উপজেলার সদর ইউনিয়নের হাসপাতাল পাড়ার বাসিন্দা কামাল পাশার ছেলে আলা উদ্দিনের লোহাগাড়া উপজেলায় এনজিও আশাতে কর্মরত থাকা অবস্থায় কাশি, জ্বর ও গলা ব্যাথা অনুভূত হলে লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দেওয়ার পর পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। পরে তার নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদনে করোনা পজেটিভ আসে। বর্তমানে তাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইশোলেশনে রাখা হয়েছে। ১৪ দিন পর পরীক্ষার জন্য পূণরায় তার নমুনা সংগ্রহ করা হবে। এদিকে এ পর্যন্ত উপজেলায় স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও সাংবাদিকসহ সর্বমোট ২৩৭ জনের নমুনার সংগহের পর ১৭ জুন পর্যন্ত ১৮১জনের রিপোর্ট পাওয়া যায়। এর মধ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাসহ ১২ জনের নমুনা পরীক্ষায় পজেটিভ ও বাকীগুলোর রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। প্রথম থেকে এ পর্যন্ত ১১জন করোনা রোগী দায়িত্বরত চিকিৎসকদের আন্তরিকতায় সম্পুর্ণ সুস্থ হয়। বর্তমানে এক ১জন রোগী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ও হোম কোয়ারেন্টিনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানান, স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদুল হক। সচেতন মহলের মতে, উপজেলার হাট বাজার ও গণপরিবহনে যথাযথ স্বাস্থ্য বিধি না মানার কারণেই দিন দিন বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা।

এ বিষযে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ- জান্নাত রুমি বলেন, নতুন আক্রান্ত শিশু জিসানসহ অন্য আক্রান্তদেরকেও স্বাস্থ্য কমপেক্সের আইশোলেশন ও হোম কোয়ারেন্টিনে রেখে চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে। এছাড়া করোনা সংক্রমন এড়াতে প্রতিনিয়ত সচেতনতামূলক প্রচার প্রচারণা অব্যাহত রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •