মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

ইংরেজি দৈনিক ডেইলি ফিনেন্সিয়াল এক্সপ্রেস এর কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি সিনিয়র সাংবাদিক আবদুল মোনায়েম খানের মৃত্যুর ২ দিন পর তার মাতা মোছাম্মৎ সাজেদা খানম (৮৬) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি–রাজেউন)। মঙ্গলবার ৯ জুন বেলা ১ টার দিকে মরহুমার পুত্র ও জীবন বীমা কর্পোরেশনের সহকারী মহা ব্যবস্থাপক আবদুল বাসেত খান এর চট্টগ্রাম শহরের চকবাজার আরএফ টাওয়ারে বাসায় বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে শেষ নিঃস্বাস ত্যাগ করেন।

বিষয়টি জীবন বীমা কর্পোরেশনের এজিএম আবদুল বাসেত খান সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরো জানান, বার্ধক্যজনিত কারণে অসুস্থ হয়ে তাঁর মা মোছাম্মৎ সাজেদা খানম গত ৩ বছর ধরে চট্টগ্রাম তাঁর বাসাতেই ছিলেন।

মোছাম্মৎ সাজেদা খানম কক্সবাজার শহরের তারাবনিয়ার ছরা কবরস্থান রোডের মরহুম কানুনগো বদিউল আলমের সহধর্মিণী। মরহুমা মোছাম্মৎ সাজেদা খানম ও মরহুম কানুনগো বদিউল আলম দম্পতির ২পুত্র ও ২কন্যার মধ্যে জ্যেষ্ঠ পুত্র সিনিয়র সাংবাদিক আবদুল মোনায়েম খান (৫৪) গত ৭ জুন করোনায় আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। মরহুমা মোছাম্মৎ সাজেদা খানম মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ীর মরহুম উলা মিয়া সিকদারের কন্যা। মরহুমা মোছাম্মৎ সাজেদা খানমের স্বামী মরহুম কানুনগো বদিউল আলম ছিলেন-কুতুবদিয়া উপজেলার ঐতিহ্যবাহী মনোহর আলী বংশের তৃতীয় প্রজম্মের সন্তান। তিনি ২০০৯ সেপ্টেম্বরে মারা যান।

মরহুমা মোছাম্মৎ সাজেদা খানমের মৃতদেহ নিয়ে তাঁর সন্তান জীবন বীমা কর্পোরেশনের এজিএম আবদুল বাসেত খান বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা করবেন বলে সিবিএন-কে জানিয়েছেন। একইদিন এশারের নামাজের পর তারাবনিয়ার ছরা কবরস্থান মাঠে জানাজা শেষে স্বামী মরহুম কানুনগো বদিউল আলম ও জ্যেষ্ঠ পুত্র মরহুম আবদুল মোনায়েম খান এর কবরের পাশেই মোছাম্মৎ সাজেদা খানমকে দাফন করা হবে বলে জানিয়েছেন, পুত্র আবদুল বাসেত খান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •