লোহাগাড়া প্রতিনিধি:

লোহাগাড়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের আলুরঘাট রোডে (এলজিইডি) সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, আলুরঘাট রোডের ৯শ মিটার বিভিন্ন উন্নয়ন সংস্কার কাজের কাজ পান ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স নাফি ট্রেডার্স। সংস্কার কাজের বাজেট ১২ লাখ টাকা।

সরেজমিন পরিদর্শনে গিয়ে দেখা যায়, ওয়ারকাটারে সড়র সংস্কার ১২ মিলি কার্পেটিং করার কথা থাকলেও কার্পেটিং হচ্ছে ৭/৮ মিলি। আবার কোথাও কোথাও ১০/১২ মিলিও রয়েছে। সড়ক সংস্কার কাজে ঠিকাদেরর নিয়োজিত শ্রমিকদের কাছে কাজের মান সম্পর্কে জানতে চাইলে তারা বিষয়টি ঠিকাদেরর সাথে আলাপ করার জন্য সাফ জানিয়ে দেন।

কাজ তদারকীতে দায়িত্বরত নুরুল আবছার বলেন, কাগজে যতটুকু লেখা আছে ততটুকু কার্পেটিং করা হচ্ছে। সবসময় উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার কাজ দেখতেছে বলেও জানান তিনি। তবে সংস্কার কাজের অনিয়মের কথা জিজ্ঞাসা করলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান।

কিন্তু ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স নাফি ট্রেডার্সের নাম ব্যবহার করে জৈনক নুরুল আবছার কাজটি করছেন বলে উপজেলা এলজিডি অফিস সুত্রে জানা যায়।

নুরুল আবছার রাজনৈতিক দলের ছত্র ছায়ায় প্রভাশালী হওয়ায় কেউ লিখিত অভিযোগ করতে সাহস পাচ্ছে না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি বলেন, আলুরঘাট সড়কটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ সড়ক। দীর্ঘদিন পর সকটি সংস্কার করা হচ্ছে। যে সংস্কার হচ্ছে সেটিও নিন্মমানের। নিন্মমানের বিটুমিন দিয়ে কার্পেটিং করানো হচ্ছে। এছাড়া রোলার দিয়ে ভালো ভাবে চাপাও দিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন অনেকে। পুরনো সড়কে ভাল ভাবে পরিস্কার না করে এ সংস্কার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে মেসার্স নাফি ট্রেডার্স।

এদিকে স্থানীয়দের সাথে কথা বললে তারা জানা, ঠিকাদারী যিনি কাজ করছেন তিনি রাজনৈতিক ব্যক্তি আপাতত সড়ক সংস্কার কাজের ব্যাপারে কিছুই বলতে নারাজ এলাকাবাসী।

লোহাগাড়া উপজেলা প্রকৌশলী দিবাকর রায়ের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সড়ক সংস্কার কাজ আমি নিজে তদারকি করছি। আপনি যখন বলছেন আমি নিজে গিয়ে সংস্কার কাজ দেখে আসব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •