আন্তর্জাতিক খবর:

লক্ষীপুর-০২ রায়পুর আসনের সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুল কে গত ৬ জুন শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত ১১ টায় কুয়েতে তার নিজ বাসভবন থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে কুয়েত সিআইডি।

যদিও এখনো পর্যন্ত এর কারণ সম্পর্কে যথাযথ কোন ব্যাখ্যা পাওয়া যায় নি। তবে পূর্বের বিভিন্ন ঘটনা যাচাই করে ধারনা করা হচ্ছে, কুয়েতের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অন্যান্য দেশের মানুষদের চাকরী না দিয়ে বেশিরভাগ সময় বাঙালীদের চাকরী দেওয়ায় ওখানকার প্রভাবশালী ব্যবসায়ীরা তার উপর ক্ষিপ্ত হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ফলশ্রুতিতে তাঁরা সংসদ সদস্য পাপুলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করতে থাকে। বাংলাদেশের লক্ষীপুর-০২ রায়পুর আসনের সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত তার কোম্পানি মারাফি কুয়েতিয়ার মাধ্যমে কুয়েতে প্রায় ২৩ হাজার বাঙালীকে চাকরী দিয়েছেন। এমনকি কুয়েতে বাঙালীদের সুখে দুঃখে থাকার পাশাপাশি সেখানে কোন বাঙালীর মৃত্যু হলে এমপি কাজী শহিদ ইসলাম পাপুল নিজেই লাশ বহন করে সহযোগিতায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেন বলে সেখানকার প্রবাসী বাঙালী সূত্রে জানা যায়।

প্রবাসী একটি বিশেষ সূত্র জানিয়েছেন, ধারণা মতে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়েছে। কুয়েতের বাঙালী কমিউনিটির মধ্যে এনিয়ে ক্ষোভ ও আতঙ্ক বিরাজ করছে। বাংলাদেশে কুয়েতের ভিসা দীর্ঘদিন বন্ধ থাকা সত্ত্বেও এমপি শহিদ ইসলাম পাপুল তার কোম্পানির সফলতায় সেখানে প্রায় ২৩ হাজার বাঙালীর চাকরী সৃষ্টি করতে পেরেছেন।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মারাফি কুয়েতিয়ার একাউন্টস ডিপার্টমেন্টের প্রধান মুর্তজা মামুন বলেন, ‘গতকাল রাতে শহিদ ইসলাম এমপি’কে তার কুয়েতের বাসভবন থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যায় কুয়েত সিআইডির একটি দল। তবে এর প্রকৃত কারণ সম্পর্কে আমরা এখনো বিস্তারিত কিছু বলতে না পারছিনা। পরবর্তীতে আইনজীবীদের মাধ্যমে সংবাদ সম্মেলন করে জানানো হবে।

উল্লেখ্য, কাজী শহিদ ইসলাম পাপুল ‘এনআরবিসি ব্যাংক লিমিটেড’ এর ভাইস-চেয়ারম্যান ও লক্ষীপুর-০২ রায়পুর আসন থেকে নির্বাচিত স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •