আলীকদম প্রতিনিধি :

একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে ও ‘করোনা ডট গভ ডট বিডি’ নামে সরকারি ওয়েব সাইটে ‘লামা-আলীকদম-নাইক্ষ্যংছড়ি’কে ‘রেড জোন’ করা হয়েছে মর্মে প্রচার করা হলেও এ ধরণের প্রশাসনিক কোন নির্দেশনা এখনো পাননি বলে জানিয়েছেন আলীকদম উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সায়েদ ইকবাল।

রবিবার সকালে বান্দরবানের একটি নিউজ পোর্টাল এবং সরকারি ওয়েব সাইট https://corona.gov.bd –তে প্রচার করা হয়। রবিবার দুপুরে এ ওয়েব সাইটে দেখা যায়, ‘লাল কালি’তে লেখা হয়েছে বান্দরবানের ‘লামা, আলীকদম ও নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা’কে। তার মানে হচ্ছে- এ তিন উপজেলা ‘রেড জোন’ এর আওতায় রয়েছে।

সরেজমিন দেখা গেছে, রেড জোন এর ছিটেফাঁটা চিহ্নও নেই আলীকদম উপজেলায়।

প্রসঙ্গত, ‘রেড জোন’ এলাকায় সকল প্রকার ব্যক্তিগত, পারিবারিক, সামাজিক, রাজনৈতিক গণজমায়েত নিষিদ্ধ। জনসাধারণকে আবশ্যিকভাবে নিজ ঘরে/আবাসস্থলে অবস্থান করতে হয়। ব্যক্তিগত ও গণপরিবহণ বন্ধ থাকে। নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য বহনকারী হালকা ও ভারী যানবাহন রাত ৮টা থেকে থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত চলাচল করতে পারে। এছাড়াও সকল প্রকার দোকান, মার্কেট, বাজার, হাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে। কেবলমাত্র রবিবার ও বৃহস্পতিবার কাঁচা বাজার ও মুদি দোকান স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত আকারে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে। ওষুধের দোকান এর আওতার বাইরে থাকবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •