সিবিএনঃ
করোনার এই দুর্যোগ কালীন পরিস্থিতিতে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে যোগদান করলো ৭ম ব্যাচের ১৩ জন ইন্টার্ণ চিকিৎসক।

শনিবার (৬ জুন) দুপুরে জেলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার মোহাম্মদ মহিউদ্দিনের হাতে তারা যোগদানপত্র জমা দেন।

অানুষ্ঠানিক যোগদান শেষে নতুন চিকিৎসকদের নিয়ে সদর হাসপাতালের কনফারেন্স হলে কোভিট-১৯ থেকে নিজেদের সুরক্ষার জন্য আইপিসি (Infection, prevention & control) ট্রেনিং অনুষ্ঠিত হয়।

ট্রেনিংটি পরিচালনা করেন সার্জারী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডাক্তার আরিফ হোসাইন।

নবাগত চিকিৎসকদের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দেন মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডাক্তার মোহাম্মদ ইউনুছ।

নতুন কর্মস্থলের প্রথম দিনেই প্রয়োজনীয় সুরক্ষা সামগ্রী এবং আইপিসি ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থার জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নিকট কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে চিকিৎসকরা।

তারা হলেন –
১. হুমায়রা আমরিন
২. ইফতারোজ জাহান
৩. শান্তা বিশ্বাস
৪. মোঃ ইমরানুল ইসলাম
৫. তারেক নেওয়াজ উল্লাস
৬. তাসিন তাহা
৭. ইকবাল মাহমুদ বেলাল
৮. সায়েদ মুহাম্মাদ সালেম
৯. জুবাইদা নাসরিন
১০. সুদীপ্ত ঘোষ
১১. টি.এম. মুজাহীদুল ইসলাম
১২. রায়হান আহমেদ
১৩. সাকিব রেজা

বর্তমানে কক্সবাজারের অনেক ডাক্তার করোনায় আক্রান্ত। অনেকে কোয়ারেন্টাইনে আছেন।

এই অবস্থায় ১৩ জন ইন্টার্ণ চিকিৎসকের যোগদান নতুন আশার আলো সঞ্চার করেছে।

যোগদানকৃতদের সাধুবাদ জানিয়ে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার মোহাম্মদ মহিউদ্দিন বলেন, সারা বাংলাদেশ যখন লক ডাউনে; সবাই যখন করোনার আতঙ্কে, ঠিক তখনই কক্সবাজারবাসীর প্রয়োজনে তোমাদের স্বপ্রনোদিত হয়ে এগিয়ে আসা আমাদের জন্য আনন্দের। আমার বিশ্বাস নতুন প্রাণ শক্তিকে তোমরাই উজ্জীবিত করবে। পারবে কক্সবাজারের মানুষের মুখে হাসি ফোঁটাতে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •