সংক্রামণ বেড়ে যাওয়ায় সরকার কতৃক কক্সবাজার পৌরসভাকে বাংলাদেশের সর্ব প্রথম লাল এলাকা হিসাবে চিহ্নিত করেছেন । আজ থেকে জুন ২০ পর্যন্ত লকডাউনের ঘোষনা এসেছে । পরিচিত ঘনিষ্ট অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন । আবার অনেকেই মৃত্যুর সাথে লড়াই করে যাচ্ছেন । মহান আল্লাহ সবার উপর রহমত বর্ষন করুন ।

কক্সবাজারকে বাংলাদেশে পর্যটনের রাজধানী বলা হয়। প্রতি বৎসর লক্ষাধিক পর্যটক এই শহরে ভ্রমণে আসে। আসে অনেক ভিভিআইপি ভিআইপি । নতুন ভাবে যোগ হলো ১১লক্ষ রোহিংগা,এবং তাদের সেবায় নিয়োজিত কয়েক হাজার দেশী বিদেশী এনজিও কর্মী । কক্সবাজার জেলায় মেডিকেল কলেজ স্থাপিত হওয়ার পর সবাই আশা করেছিল স্বাস্হ্য সেবার উন্নতি হবে কিন্তু হলো না ।

আমি মহান সংসদে বলেছিলাম মহামান্য রাষ্ট্রপতি , মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বা ভিআইপি রা কক্সবাজারে সফরে আসলে নানা কারনে স্বাস্হ্য ঝুঁকিতে পড়লে ICU Bed দরকার , অবিলম্বে যেন পর্যাপ্ত ICU বেড স্থাপন করা হয় ।পরে কয়েকটা ICU বেড কক্সবাজার হাসপাতালে যোগ হয়েছিল ।

এমনিতে কক্সবাজারবাসী মহামারী করোনার স্বাস্হ্য ঝুঁকিতে রয়েছে ।অনেক আগেই সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের উচিত ছিল কক্সবাজার হাসপাতালে পর্যাপ্ত ICU বেড এবং ভেন্টিলেটর মেশিন স্থাপন করা । কক্সবাজার জেলার করোনার সংক্রামণের সংখ্যা দেখলে মনে হয় , আমাদের উপর মহা বিপদ আসন্ন । আর কালক্ষেপণ না করে অবিলম্বে স্বাস্হ্যসেবার যাবতীয় প্রস্তুতি গ্রহন করা দরকার । কক্সবাজার বাসীর প্রতি অনুরোধ, বাড়ীতেই থাকুন ,নিরাপদে থাকুন ।মহান আল্লাহ আমাদের সহায় হউন ।

লুৎফুর রহমান কাজল
জুন ০৬ , ২০২০

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •