হারুনর রশিদ, কুতুবদিয়া থেকে ফিরে:

ঘূর্ণিঝড় আম্ফান পরবর্তী মহেশখালী-কুতুবদিয়া দ্বীপ পরিদর্শনে আসলেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের  সচিব কবির বিন আনোয়ার। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টার সময় কক্সবাজার থেকে পানি পথে সচিব সফর সঙ্গীদের নিয়ে কুতুবদিয়া উপজেলায় পৌঁছেন। কুতুবদিয়া সফর শেষে তিনি মাতারবাড়ি ও ধলঘাটায় যান।

পরিদর্শন কালে তিনি বলেন, সাগরের করাল গ্রাস স্রোত থেকে রক্ষা পেতে বেড়িবাঁধের বাহিরে সবুজ বৃক্ষ, প্যারাবন, ঝাউবন রোপন করতে হবে। দ্বীপ রক্ষা করতে ম্যানগ্রোভসহ দুর্যোগসহনশীল বৃক্ষ রোপন করা হবে। ঘূর্ণিঝড়সহ বিভিন্ন ঝড়-জঞ্জার থেকে দ্বীপবাসীকে রক্ষা করতে বৃক্ষ রোপনের বিকল্প নেই।

এসময় সঙ্গে ছিলেন কক্সবাজার-২আসনের  সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড চট্টগ্রাম জোনের প্রধান প্রকৌশলী অখিল কুমার বিশ্বাস, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড কক্সবাজারের তত্ত্বাবধায়ক মোঃ রুহুল আমিন, কুতুবদিয়া উপজেলার চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম চৌধুরী, মহেশখালী উপজেলার নির্বাহী অফিসার মোঃ জামিরুল ইসলাম, কুতুবদিয়া উপজেলার নির্বাহী অফিসার জিয়াউল হক মীর, কুতুবদিয়া থানার ওসি দিদারুল ফেরদাউস, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতববর, স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।
সচিব কবির বিন আনোয়ার কুতুবদিয়া উপজেলা সদরে একটি বৃক্ষ রোপন করেন। পরে কাইছারপাড়া এলাকার ভাঙ্গন কবলিত, সংস্কার করে বেড়িবাঁধ, আলী আকবর ডেইল তাবালের চর এলাকার বেড়িবাঁধ, জেলেপাড়ার  বেড়িবাঁধ,  বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্পসহ কুতুবদিয়ার ৭১নাম্বার পোল্ডারের বেড়িবাঁধ পরিদর্শন করেন। তিনি বিকাল সাড়ে ৩টার সময় নৌ-পথে কুতুবদিয়া ছেড়ে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। নৌ-পথে যাওয়ার সময় মাতারবাড়ী ও ধলঘাটার বেড়িবাঁধ ভাঙ্গন ও বিভিন্ন প্রকল্প ঘুরে দেখেন সচিব।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •