চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

পূর্ব পাকিস্তান প্রাদেশিক পরিষদের বিরোধীদলীয় নেতা ও প্রাদেশিক আইন পরিষদের চেয়ারম্যান মরহুম জননেতা এ.কে.এম ফজলুল কবির চৌধুরী মেঝ সন্তান ও রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ.বি.এম. ফজলে করিম চৌধুরী এমপি’র মেঝ ভাই ফজলে রাব্বি চৌধুরী (মানিক) ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলায়হে রাজিউন)।

আজ ৪ জুন বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় চট্টগ্রাম নগরীর ম্যাক্স হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৯ বছর। তিনি বহু সামাজিক প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ছিলেন। তার মৃত্যুতে রাউজানের সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

আগামীকাল ৫ জুন শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে রাউজানের গহিরা কলেজ মাঠে পারিবারিকভাবে মরহুমের জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে জানাজার নামাজে জনসাধারণকে না আসার আহ্বান জানিয়েছেন রাউজানের সাংসদ ফজলে করিম চৌধুরী।

এ প্রসঙ্গে আজ দুপুরে সাংসদপুত্র ফারাজ করিম চৌধুরী তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেন, ‘আগামীকাল বাদে জুমা রাউজানের গহিরা কলেজ মাঠে আমার মেঝ চাচা ফজলে রাব্বি চৌধুরীর জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। একজন মুসলমান হিসেবে মৃত্যুর পর জানাজা পড়ানোর বিধান থাকায় আমরা পারিবারিকভাবে খোলা মাঠে জানাজার নামাজ পড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমার বাবা বুকে পাথর রেখে উনার পিতৃতুল্য বড় ভাই হওয়া সত্ত্বেও রাউজানবাসীর নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে জানাজায় না এসে বরং সকলকে ঘরে বসে দোয়া করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

আমিও সকলের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি, করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় আপনারা দয়া করে কেউ জানাজায় আসবেন না। পরিবারের একজন সদস্যকে হারানোর বেদনা আমাদের সহ্য করতে কষ্ট হচ্ছে। আমরা চাই না জানাজায় এসে আপনাকে ও আপনাদের পরিবারকে করোনার ঝুঁকির মুখে ঠেলে দিতে। বলতে কষ্ট হলেও আপনাদের কাছে করজোড়ে অনুরোধ জানাচ্ছি সবাই নিজ নিজ স্থান হতে আমার চাচার জন্য দোয়া করবেন।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •