মোঃ রাসেল ইসলাম,বেনাপোল প্রতিনিধি :

দীর্ঘদিন ধরে বেনাপোল কাস্টম হাউসকে ফলোআপ করে ফেইসবুকে বাইক সেল অফিশিয়াল নামে ভুয়া পেজ খুলে নিলামে ভারতীয় নতুন মোটর সাইকেল বিক্রয়ের প্রতারণা করার দায়ে বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ কুমিল্লার মৃত শাহ আলমের পুত্র আরমান (২৮) নামে একজন প্রতারককে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে।

ভারত থেকে আমদানিকৃত মোটরসাইকেল বিভিন্ন অনিয়মের কারণে ছাড় করন সম্ভব না হলে, বেনাপোল কাস্টম হাউস পরবর্তীতে রাজস্ব বোর্ডের নির্দেশানুযায়ী সেই নতুন মোটরসাইকেল গুলোকে নিলামে উঠায়।নিলাম থেকে এই মোটর সাইকেল গুলো বিভিন্ন ক্রেতাগণ ক্রয় করে থাকেন। প্রতারক চক্র এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেনাপোল কাস্টম হাউজকে ফলোআপ করে ফেইসবুকে বাইক সেল অফিসিয়াল পেজ নামে একটি ভুয়া পেজ খুলেন। এই পেজটি খোলার পরে এই প্রতারক চক্র দেশের বিভিন্ন মোটরসাইকেল ক্রেতাদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে থাকেন।

এরই ধারাবাহিকতায় বিভিন্ন ক্রেতাদের অভিযোগের ভিত্তিতে বেনাপোল কাস্টম হাউসকে জড়িয়ে এই বাইক সেল অফিশিয়াল ভুয়া পেজ সম্পর্কে বেনাপোল কাস্টম হাউজ এর দৃষ্টিগোচর হলে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ২০১৮ সালের পয়লা জুন এ বেনাপোল কাস্টমস কর্তৃপক্ষ বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-২৬,

বেনাপোল কাস্টম হাউসে রাজস্ব কর্মকর্তা নাঈম মিরন বাদী হয়ে এই মামলাটি দায়ের করেন। তিনি জানান বেনাপোল কাস্টম হাউস কে জড়িয়ে একটি প্রতারক চক্র ফেইসবুকে বাইক সেল অফিসিয়াল ভুয়া পেজ আইডি খুলে বিভিন্ন জনগণের সাথে প্রতারণা করছে আমাদের কাছে অভিযোগ আসে। এ বিষয়টি কাস্টমের নজরে এলে তাৎক্ষণিক মামলা দায়ের করা হয়। কাস্টম কর্তৃপক্ষের ধারণা এই প্রতারক চক্র ভারত থেকে চোরাই পথে মোটরসাইকেল এনে এই পেজের মাধ্যমে বিক্রি করে থাকেন।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুন খান বলেন বেনাপোল কাস্টমস কর্তৃপক্ষ বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন।সেই মোতাবেক আমরা প্রধান আসামি আরমানকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করি। আসামিকে যশোর বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •