এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া :

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার মাতামুহুরী নদীর বাঘগুজারা পয়েন্ট থেকে আরমান হোসেন (৮) নামের এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে শিশু আরমার নৌকা থেকে নদীর পানিতে পড়ে গিয়ে নিখোঁজ হয়ে যায়। ঘটনার পর থেকে নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে সন্ধান করেও ওইদিন খোঁজ মেলেনি।

নিখোঁজের প্রায় ১৭ ঘন্টা পর গতকাল বুধবার বিকেল ৪টার দিকে মাতামুহুরী নদীর কোনাখালী ইউনিয়নের বাঘগুজারা পয়েন্টে তার মরদেহ ভাসমান অবস্থায় দেখতে পান স্থানীয় লোকজন। পরে পরিবার সদস্য ও প্রতিবেশি লোকজন গিয়ে নদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার করেন। আরমান চকরিয়া উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়নের মরংঘোনা এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে।

শিশু আরমানের মরদেহ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চকরিয়া উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদার। তিনি বলেন, শিশু আরমান মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে মাতামুহুরী নদীর বাঘগুজারা বাজার পয়েন্টে একটি মাছ ধরার ডিঙ্গী নৌকায় উঠে খেলা করছিলো। এ সময় সে অসাবধান বশত নদীতে পড়ে যায়। ঘটনার পর নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে সন্ধান করেও ওইদিন খোঁজ মেলেনি।

ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, ঘটনাটি জানার পর পেকুয়ার দমকল বাহিনীর সদস্যরা বুধবার দুপুরে উদ্ধার অভিযানে নামেন। একইসঙ্গে চট্টগ্রামের একটি ডুবুরী দলও উদ্ধার অভিযান অব্যহত রাখেন। পরবর্তীতে প্রায় ১৭ ঘন্টা পর গতকাল বুধবার বিকেলে কোনাখালী ইউনিয়নের আকতার মিয়ার খামার সংলগ্ন স্লুইচ গেইট পাশের নদী থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •