শাহেদ মিজান, সিবিএন:

চট্টগ্রাম করোনা ডেডিকেটেড জেনারেল হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে নিজেই করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন মহেশখালী উপজেলা ধলঘাটার সন্তান ডা. শেখ সাদী। প্রায় এক মাস পর অবশেষে তিনি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। মঙ্গলবার (২জুন) তাঁকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। চট্টগ্রাম করোনা ডেডিকেটেড জেনারেল হাসপাতালেই তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন। তিনিই ওই হাসপাতালে কর্মরত প্রথম চিকিৎসক। ডা. শেখ সাদী নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, করোনার আগে তিনি ও তাঁর স্ত্রী চট্টগ্রামের দোহাজারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ছিলেন। কিন্তু করোনা শুরু হলে নির্দিষ্ট সময় ভিত্তিক ডা. শেখ সাদী ও তার স্ত্রীকে চট্টগ্রাম করোনা ডেডিকেটেড জেনারেল হাসপাতালে করোনা পাঠায় স্বাস্থ্য বিভাগ। সেখানে করোনা করোগীদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে ১১ মে করোনা আক্রান্ত হয়ে যান ডা. শেখ সাদী। ফলে ওই হাসপাতালের আইসোলেশন সেন্টারেই তাকে ভর্তি করা হয়। দীর্ঘ প্রায় ২৫ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর তিনি করোনা মুক্ত হন। সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠলে গত মঙ্গলবার তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, পরম করুণাময়, দয়ালু আল্লাহপাকের অশেষ রহমতে এবং সবার দোয়ার বরকতে আমি এখন সম্পূর্ণ সুস্থ। হাসপাতাল থেকে আমাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে এবং আগামী ১৪ দিন হোম কোয়ারান্টাইন এ থাকার এর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

‘আমার প্রতি আপনাদের ভালবাসার কাছে আমি ঋণী। কিন্তু আমি অসুস্থ না হলে হয়ত বুঝতে পারতাম না আমার প্রতি আপনাদের ভালবাসার গভীরতা এত বেশী। এই অকৃত্রিম অনুভূতির প্রতি আমি আজন্ম ঋণী থাকত চাই।’ বললেন ডা. শেখ সাদী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •