সম্প্রতি বাইশারীর একটি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও বিভিন্ন নিউজ পোর্টালে আমার বিরুদ্ধে যে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ হয়েছে তা আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে। যাহা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত।

প্রকৃত ঘটনা হচ্ছে রামু গর্জনিয়া ইউনিয়নের বড়বিল গ্রামের নুরুল আব্ছারের পুত্র সরওয়ার জাহান আমার বাল্যকালের বন্ধু হয়। আমরা দুইজন দুইজনের সুখে-দু:খের সাথি ছিলাম ঘটনার দিন পর্যন্ত। কিন্তু পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এখন একে অপরের শত্রু।

মূল ঘটনা হচ্ছে তার কাছ থেকে আমি ৫হাজার টাকা পাওনা ছিলাম। বৈশ্বিক মহামারী করোনার কারণে লকডাউন ও পবিত্র রমজানের কারণে আমি যখন কর্মহীন হয়ে পড়ি তখন তার কাছ থেকে পাওনা টাকা চাইতে যাই। সে আমাকে নগদ ৪শত টাকা দিয়ে বাকী ৪৬শত টাকা ১৯-০৫-২০২০ইং দুপুরে দিয়ে দিবে বলে কথা দিয়ে চলে যায়। তার কথা মত আমি গত ১৯-০৫-২০২০ইং তারিখ দুপুর একটার সময় উত্তর বড়বিল তার বাড়ীর কাছে গিয়ে টাকা চাইলে সে টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করে।

এদিকে আমার টাকার বিশেষ প্রয়োজন বিধায় আমি বার বার টাকা প্রদানের দাবী জানাই। মানুষের সামনে কেন টাকা চাইলাম একারণে সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে লাথি ও কিল-ঘুষি মেরে ফোলা জখম করে। আমি আত্মরক্ষার্থে তাকে ধাক্কা দিলে গাছের সাথে লেগে তার মাথায় আঘাত প্রাপ্ত হয়।

এঘটনাকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও বিভিন্ন নিউজ পোর্টালে আমাকে সন্ত্রাসী ও ইয়াবা ব্যবসায়ী হিসাবে আখ্যা দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করা হয়। উক্ত ঘটনার একদিন আগেও আমাকে কোন দিন এলাকার কেউ সন্ত্রাসী বা ইয়াবা ব্যবসায়ী বলে নাই। অথচ যাচাই-বাছাই না করে আমাকে সন্ত্রাসী ও ইয়াবা ব্যবসায়ী বলা দুখ:জনক। সুতরাং উক্ত মিথ্যা সংবাদে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য সকলের কাছে অনুরোধ জানাচ্ছি।

অনুরোধক্রমে-

মো: জুনাইদ উদ্দিন

পিতা-বাদশা মিয়া

৭নং ওয়ার্ড, বাইশারী

নাইক্ষ্যংছড়ি, বান্দরবান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •