শাহেদ মিজান, সিবিএন:

করোনা আক্রান্ত হয়েছে মারা গেছেন টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের নুরুল ইসলাম (৬৩)। বৃহস্পতিবার (২৮ মে) ভোর ৫টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মারা যান তিনি (ইন্না-লিল্লাহি—রাজেউন)।

মৃত নূরুল ইসলাম সাবরাং শাহপরীর দ্বীপ এলাকার মরহুম হাজী বশির আহমদ মেম্বার এর বড় ছেলে, কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমানের ভগ্নিপতি এবং রামু স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সদ্য যোগদান করা বিসিএস (স্বাস্থ্য) ডা. ইনজামামুল ইসলামের বাবা।

নুরুল ইসলামের ভাগিনা ও টেকনাফের সাংবাদিক জাকারিয়া আলফাজ জানান, নুরুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে হাঁপানি, ডায়বেটিস ও হার্টের রোগে ভুগছিলেন। এর মধ্যে ঈদের কয়েকদিন আগে শ্বাসকষ্ট নিয়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এর মধ্যে কক্সবাজারে তার করোনা নমুনা পরীক্ষা করা হলে রিপোর্ট পজেটিভ আসে। কিন্তু অবস্থার আরো অবনতি হলে ঈদের আগের দিন তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর সেখানে করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তবে তিনি কিভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তা জানাতে পারেননি সাংবাদিক জাকারিয়া আলফাজ।

নূরুল ইসলাম মরদেহ ঢাকা নিয়ে আসা হচ্ছে। করোনা স্বাস্থ্য বিধি তাকে কক্সবাজারে দাফন করা হবে বলে জানান তার ভাগিনা সাংবাদিক জাকারিয়া আলফাজ।

উল্লেখ্য, কক্সবাজারে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •