এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া:

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের পর থেকে চকরিয়া পৌরবাসির জন্য বিরতিহীন ভাবে কাজ করতে গিয়ে ঈদুল ফিতরের দুইদিন আগে শাররীকভাবে প্রচন্ড জ্বর ও কোমর ব্যথায় ভুগছিলেন চকরিয়া পৌরসভার জনপ্রিয় মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক আলমগীর চৌধুরী। সেই থেকে তিনি চকরিয়া পৌরসভার কাহারিয়াঘোনাস্থ নিজ বাসভবনে বিশেষঞ্জ চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে সেখানে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

মেয়রের ব্যক্তিগত সহকারি শেফায়েত ওয়ারেসি জানিয়েছেন, ঈদের দুইদিন আগে মেয়র বৃষ্টিপাত উপেক্ষা করে চকরিয়া পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের হতদরিদ্র কর্মহীন শ্রমজীবি এবং গরীব মানুষের মাঝে ভিজিডি চাল বিতরণ করেন। ওইসময় তিনি খানিকটা বৃষ্টির কবলে পড়েন। এরআগে তিনি কয়েকরাত পৌরসভা মিলনায়তনে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে রাত জেগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদ উপহারের তালিকা তৈরী করেন। এরপর থেকে তাঁর শরীরে প্রচন্ড জ্বর এবং একই সঙ্গে কোমরে ব্যথা শুরু হয়।

শেফায়েত ওয়ারেসী বলেন, ঈদের দুইদিন আগে থেকে মেয়র অসুস্থ হয়ে নিজ বাসভবনে অবস্থান রয়েছেন। বাড়িতে থেকে তিনি বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের মাধ্যমে চিকিৎসা নিচ্ছেন। শারিরীক অসুস্থতা জনিত কারণে তিনি ঈদের আগে রাজনৈতিক সহকর্মী, পৌরবাসি, শুভানুধায়ী সবার সাথে সাক্ষাত করতে না পারায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

বর্তমানে তাঁর শারিরীক অবস্থা উন্নতির দিকে। আশাকরি তিনি কয়েকদিনের মধ্যে সুস্থ হয়ে আবারও আগের মতো চকরিয়া পৌরবাসির সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করবেন। অসহায় মানুষদের সাহায্যে এগিয়ে যাবেন। এইজন্য তিনি  সর্বস্তরের জনসাধাণারনের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •