চট্টগ্রাম সংবাদদাতা :

চিনি, মিষ্টি, ও মিষ্টি পানীয় আমাদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতাকে দুর্বল করে দিয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পথ সুগম করে দিতে পারে। একথা বললেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি সভাপতি ও স্পোর্টস মেডিসিন স্পেশালিস্ট ডাঃ শাহাদাত হোসেন। এই লকডাউনের মাঝে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেইসবুকে লাইভে এসে টেলিমেডিসিন সেবার মাধ্যমে জনগণের মধ্যে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। এ সেবা চলছে রবি, মঙ্গল, ও বৃহস্পতিবার রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত।

তিনি বলেন, মিষ্টি বাঙ্গালীর প্রিয় খাবার। আবার চায়ে চিনি ছাড়া চলে না অনেকেরই। আবার রাতের খাবারের শেষে কোক/পেপসি না খেলে খাবার হজম হয়না কারো কারো। এ ছাড়াও, অতিথি আপ্যায়ন বা গরম দুপুরে রুহ আফযা বা শরবতেরও বিপল্প
কম। কিন্তু এই মিষ্টি খাবার ও পানীয়ই কাল হয়ে দাড়াতে পারে এই করোনা কালে। অ্যামেরিকান জার্নাল অফ ক্লিনিকাল নিউট্রিশানে প্রকাশিত অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির রিসার্চে দেখা গেছে যে চিনি আমাদের ইমিউন সিস্টেমকে দুর্বল করে দিতে পারে। আর এই সুযোগে আপনাকে কাবু করে দিতে পারে করোনা।

এছাড়াও চিনি আপনার ওজন বাড়িয়ে তুলতে পারে এবং রক্তে শর্করার মাত্রা বৃদ্ধি করতে পারে। আর অতিরিক্ত চিনিতে অভ্যস্ত হয়ে গেলে, আপনি হয়ে পড়বেন অলস। এক্ষেত্রে মিষ্টি খাবার পরিহার করতে হবে। কোমল পানীয় বা শরবতের বিকল্প হতে পারে পানি। হ্যাঁ, পানি একটি চমৎকার স্বাস্থ্যকর পানীয় যা আমাদেরকে হাইড্রেট করে উজ্জিবিত রাখে। তাই আগামীবার শরবত বা কোমল পানীয়র
জন্য মন চাইলে, নিজের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে বেছে নিতে হবে পানি। আর চায়ে পরিহার করতে হবে চিনি।

এখন দেশ যখন হার্ড ইমিউনিটির পথেই আগাচ্ছে, আমাদের যার যার স্বাস্থ্য নিজেকেই উন্নত করতে হবে। যার রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা ভালো, তারা বেঁচে যাবেন,বাকিদের অবস্থা হবে করুণ। এ কারণে নিজের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর বিকল্প নেই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •