অনলাইন ডেস্ক : করোনায় আক্রান্ত হলে স্মার্টফোনের মাধ্যমে খুব সহজেই তা শনাক্ত করা যাবে। যুক্তরাষ্ট্রের একদল গবেষক একটি সেন্সর তৈরি করেছে, যা ফোনে সংযুক্ত থাকে এবং ব্যবহারকারী হাঁচি বা কাশি দেয়ার ৬০ সেকেন্ডের মধ্যেই তার করোনা আছে কিনা শনাক্ত করা সম্ভব হবে। খবর ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম মেট্রোর।

যুক্তরাষ্ট্রের ইউটা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ার এবং প্রকল্পের প্রধান অধ্যাপক মাসউদ তাবিব-আজর জানিয়েছেন, গ্যাজেটটি মূলত মশা থেকে ছড়ানো জিকা ভাইরাস শনাক্তের জন্য এক বছর আগে এই প্রকল্পটি নিয়ে কাজ শুরু করা হয়েছে। তবে কোভিড-১৯ বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ায় এখন তা এই ভাইরাস আক্রান্তদের শনাক্ত করার জন্য কাজ করা হচ্ছে। এটি ওয়্যারলেস প্রযুক্তি ব্লুটুথের মাধ্যমে স্মার্টফোনের সাথে যোগাযোগ করে।

অধ্যাপক আরও জানান, করোনাভাইরাস শনাক্ত করার জন্য এতে এক ধরনের সস্তা সেন্সর ব্যবহার করা হবে যার মূল্য আনুমানিক ৪৫ ইউরো। এই সেন্সরটি পুনরায় ব্যবহারযোগ্য। মূলত, কেউ যদি সেন্সরে শ্বাস নেয়, হাঁচি বা কাশি হয় তবে তাদের কোভিড-১৯ আছে কিনা তা জানাতে সক্ষম হবে এটি। এক্ষেত্রে ব্যবহারকারীদের কেবলমাত্র তার ফোনের চার্জিং পোর্টে সেন্সরটি প্লাগ করতে হবে এবং সহায়ক অ্যাপ্লিকেশনটি চালু করতে হবে। এরপর সেন্সরের ওপর লালার একটি মাইক্রোস্কোপিক কণা রাখলেই তা এক মিনিটে করোনা শনাক্ত করতে সক্ষম হবে।

অধ্যাপক তাবিব-আজর বলেন, নীতিগতভাবে আমরা এই ডিভাইসটি প্রত্যেকের হাতে পৌঁছাতে চাই। এছাড়া আমরা স্বল্প ব্যয়ে বড় আকারের উৎপাদন করতে পারলে অন্য যে কোনও জিনিসের মতো মানুষ এটি তাদের কাছে রাখতে চাইবে।

অধ্যাপক বলেন, একটি ক্ষুদ্র পোর্টেবল সেন্সর সমস্ত পরিবর্তন করতে পারে। তিনি আরও বলেন, এটি স্ট্যান্ডেলোন ডিভাইস হিসাবে তৈরি করা যেতে পারে, তবে এটি একটি স্মার্টফোনেও সংযুক্ত হতে পারে। একবার আপনি এই ডিভাইসে ওয়্যারলেস বা সরাসরি সংযুক্ত হয়ে গেলে, আপনার শরীরে ভাইরাস থাকলে আপনার স্মার্টফোন সফটওয়্যার এবং প্রসেসরের সাহায্যে সতর্কতা দিতে পারেন।

জানা গেছে, আগামী জুলাই মাসে এই ডিভাইসটির চার সপ্তাহের ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা শেষে আগস্ট মাসে ব্যবহারের জন্য বাজারে ছাড়া হতে পারে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •