খলিল চৌধুরী, সৌদি আরব ##

সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের আরব দেশে গুলোতে আজ ঈদ।

মহামারী করোনা ভাইরাস পরিস্থিতর মধ্যেদিয়ে মুসলিম ধর্মের সর্বোচ্চ ধর্মীয় উৎসব ও পাচঁটি ফরজের মধ্য অন্যতম পবিত্র ঈদুল ফিতর।

গত ২৩ মে মুসলিম বিশ্বের নাবিক খ্যাত ও সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব হযরত মুহাম্মদ (সঃ) প্রিয় জন্মভূমি সৌদি আরবে চাঁদ দেখা গেছে। -খবর আরব নিউজ গেজেট।

ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের নামাজ বাড়িতে পড়ার নির্দেশ দিয়ে ২৩ মে থেকে আগামী ২৯ মে পর্যন্ত ৫ দিন সমগ্র সৌদি আরব জুড়ে ২৪ ঘন্টার কারফিউ জারী করেছে দেশটির সরকার।

মরণব্যধি রোগ করোনা বিস্তার ঠেকাতে গত ২ মার্চ থেকে সৌদির ১৩টি বড় শহরে অনির্দিষ্টকাল ও দেশজুড়ে কারফিউ চলছে।

এদিকে, মক্কা এবং মদিনার পবিত্র দুই মসজিদে ঈদুল ফিতরের নামাজ হলেও সাধারণ জনগণ অংশ নিতে পারবে না।

শনিবার সৌদি প্রেস এজেন্সির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, করোনার পুরোপুরি প্রতিরোধ এবং পূর্ব সতর্কতামূলক স্বাস্থ্যবিধি মেনে মক্কার কাবা এবং মদিনার মসজিদে নববিতে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে।

ইসলাম ধর্মের পবিত্র এ দুই মসজিদে সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণের সুযোগ থাকবে না।

দুই মসজিদের প্রেসিডেন্ট শেখ ডা. আব্দুল রহমান বিন আব্দুল আজিজ আল সুদাইস বরাত দিয়ে সৌদি প্রেস এজেন্সি বলছে, সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ পবিত্র দুই মসজিদে ঈদুল ফিতরের নামাজের অনুমতি দিয়েছেন।

আল সুদাইস বলেন, নামাজের মহান রীতিকে সেখানে পুনরায় ফেরানোর জন্য দুই মসজিদের তত্ত্বাবধায়ক বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ কতটা মরিয়া চেষ্টা করছেন এই সিদ্ধান্ত সেটি তুলে ধরছে।

সৌদি আরবের অন্যান্য মসজিদে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে না। তবে মুয়াজ্জিনরা ভোরবেলা থেকে ঈদের নামাজ পর্যন্ত মাইকে ঈদের তাকবির প্রচার করছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •