নিজস্ব প্রতিবেদক :

কক্সবাজারের পেকুয়ায় দেড়শ টমটম শ্রমিককে ত্রাণ সহায়তা দিলেন সাংবাদিক মোঃ ফারুক।

বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার দুই দফায় রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয় পেকুয়া থেকে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

জানা গেছে, মহামারী করোনায় সবচেয়ে ভয়াবহ অবস্থা পার করছে পরিবহণ শ্রমিকেরা। গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকায় খুব কষ্টে দিনাপাত করছেন তারা। এই চিন্তা থেকে শ্রমিকদের সামান্য সহায়তায় এগিয়ে এলেন টমটম চালক সমবায় সমিতির সভাপতি রিপোর্টার্স ইউনিটি পেকুয়ার সভাপতি মোঃ ফারুক। প্রতিজনকে পরিবার অনুযায়ী দেয়া হয়েছে চাল, তৈল, সেমাই, চনা। পেকুয়া সদরের নন্দীর পাড়া, বাঘগুজারা, চড়াপাড়া, আহমদ ডিলার চৌমহুনী, বারবাকিয়া বাজার, শিলখালীর মাঝের ঘোনা, চৌমহুনী, পেকুয়া বাজার, বাইম্যাখালীস্থ সংগঠনের সদস্যদের মাঝে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়। আরো শতাধিক টমটম শ্রমিককে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হবে বলে জানা গেছে। সাংবাদিক ফারুকের পক্ষ থেকে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন, টমটম চালক সমবায় সমিতির সহসভাপতি মোঃ হেলাল ও সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম।

ত্রাণ সহায়তা প্রসঙ্গে সাংবাদিক ফারুক বলেন, বর্তমান সময়ে পরিবহণ শ্রমিক যারা তারা খুব কষ্টে আছে। মহামারী করোনার কারণে গাড়িও ঠিকমত চালাতে পারেনা। তাই নিজ থেকে উদ্যোগ গ্রহণ করি তাদেরকে সহায়তা করার জন্য। এক্ষেত্রে সৌদি প্রবাসী প্রিয় মোঃ খালেদ ও টইটংয়ের বন্ধু মোঃ বাহাদুর সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। এর আগে পেকুয়া থানার মানবিক ওসি কামরুল আজম ভাই বেশ কয়েকজন টমটম শ্রমিককে সহযোগিতা করেছেন। আরো বেশ কয়েকজন শ্রমিক অভাব অনটনে দিনাপাত করছে। দয়াবান কোন মানুষ তাদেরকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলে শ্রমিক ভাইয়েরা উপকৃত হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •