জহিরুল ইসলাম, এথেন্স (গ্রীস) ##

গ্রিসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ জসীম উদ্দিন ‘অতিরিক্ত সচিব’ পদে পদোন্নতি পেয়েছেন।

দূতাবাসের সচিব ও কাউন্সিলর সুজন দেবনাথ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

রাষ্ট্রদূতের এই পদোন্নতিতে এথেন্সের রাজধানী গ্রীসসহ ইউরোপের অন্যান্য দেশ ও সংগঠনের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রদূত মোঃ জসিম উদ্দিনকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

গ্রীসে রাষ্ট্রদূত হিসেবে যোগদানের পর থেকে তিনি প্রবাসী বাংলাদেশিদের কল্যাণে আত্মনিয়োগ করেন। ভাষা শিক্ষা, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি দেশে রেমিটেন্স বৃদ্ধিতে তাঁর ভূমিকা ছিল প্রশংসনীয়।

সাম্প্রতিক সময়ে গ্রীসে বসবাসরত প্রবাসি বাংলাদেশি সন্তানদের জন্য আরবি, বাংলা, ইংরেজি ও গ্রীক ভাষাসহ বাংলাদেশের জাতীয় পাঠ্যক্রম অনুসারে নিজস্ব ভবনে একটি স্থায়ীভাবে শিশু শ্রেণী থেকে উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করার জন্যে সরকারের সহযোগিতায় প্রায় চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে বলে জানা গেছে।

বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রীসের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস বলেন, রাষ্ট্রদূত জসিম উদ্দীনের এ সাফল্যে প্রবাসি বাংলাদেশিরা উচ্ছ্বসিত।

রাষ্ট্রদূত জসিম উদ্দীনের পদোন্নতিতে গ্রীসের ইউরো বাংলা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সংগঠনের সভাপতি তাইজুল ইসলাম ফয়েজ ও সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম।

গ্রিসের সাংস্কৃতিক কর্মী শেখ শাহিন আক্তার জানান, রাষ্ট্রদূত মো:জসীম উদ্দীন তার কাজের মাধ্যমে তাদের জীবনে অনেক ইতিবাচক প্রভাব ফেলেছে।

বিশেষ করে আমাদের নারীদের চিন্তা চেতনা ও কাজ করার ক্ষেত্রে উৎসাহ যোগান এবং সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন আনতে সহায়ক ভূমিকা পালন করেন।

শাহীন আক্তার জানান, অনেক কিছুতে তারা আগ্রহ ও স্বাধীনতা লাভ করতে সক্ষম হয়েছেন, শুধু রাষ্ট্রদূত জসিম উদ্দীনের প্রেরণায়।

গ্রীস, মাল্টা ও আর্মেনিয়াসহ তিনটি দেশের প্রবাসি বাংলাদেশিদের জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে যথার্থ দ্বায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন বলে গ্রীস প্রবাসি বাংলাদেশিরা মনে করেন।

প্রবাসি বাংলাদেশিদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে বিভিন্ন কর্মে সাফল্যের জন্য রাষ্ট্রদূত জসিম উদ্দিন ২০১৮ সালে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক ঘোষিত জনপ্রশাসন পদক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে তিনি গ্রহণ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •