জে.জাহেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

করোনা উপসর্গ নিয়ে স্বেচ্ছায় আইসোলেশনে যাওয়া (চট্টগ্রাম-৬) রাউজান আসনের সংসদ সদস্য ও রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ.বি.এম ফজলে করিম চৌধুরীর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তবে এমপির নিরাপত্তাকর্মীর করোনা পজিটিভ এসেছে।

ফলাফল নেগেটিভ আসার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এমপির জ্যেষ্ঠ সন্তান ফারাজ করিম চৌধুরী।

এদিকে, রাউজান এমপির রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় স্থানীয় নেতাকর্মীদের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে। তার পরিবার, সমর্থক ও এলাকাবাসীর আশা, কিছুটা শারিরিক অসুস্থতা থাকলেও
তা থেকে তিনি দ্রুত সুস্থ্য হয়ে ফিরবেন।

সাংসদের ব্যক্তিগত সহকারী রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য সুমন দে জানান, চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটে অবস্থিত বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে নেগেটিভ আসছে।

তিনি জানান, ‘টেস্টে সাংসদ এ.বি.এম ফজলে করিম চৌধুরীর রিপোর্টে করোনা ভাইরাস-১৯ এর অস্থিত্ব পাওয়া যায়নি। ফলে রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। বর্তমানে তিনি সুস্থ রয়েছেন এবং নিজ বাসাতেই অবস্থান করছেন। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সাংসদকে বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

এ বিষয়ে রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এমপির জ্যেষ্ঠ সন্তান ফারাজ করিম চৌধুরী তার ফেসবুক পেইজে জানিয়ে দেন, ‘বাবার করোনা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ তবে ওনার নিরাপত্তাকর্মীর করোনা পজিটিভ। ঝুঁকি এখনো আছে। আপনারা নিশ্চয়ই জানেন যে, সংক্রমণ একটি পর্যায়ে না পৌঁছানো পর্যন্ত পরীক্ষা নেগেটিভ আসে এবং যেহেতু তার নিরাপত্তাকর্মী গতকালও তার থেকে কয়েক ফুট দূরত্বে ছিল সে কারণে ধূম্রজাল এখনো কাটেনি। আমার বাবার নেগেটিভ নিয়ে কেউ উল্লাস করবেন না। সবাই আলহামদুলিল্লাহ্‌ বলবেন। তবে সবচেয়ে জরুরী বিষয় হল, বাবার নিরাপত্তাকর্মী সহ আজ যাদের করোনা পজিটিভ এসেছে তাদের সকলের জন্য দোয়া করবেন।

অপরদিকে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ.কে.এম এহেছানুল হায়দর চৌধুরী বাবুল আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। জানা যায়, করোনা সংকট শুরু হওয়ার প্রথম থেকেই রাউজানে ব্যাপক কর্মযজ্ঞের মাধ্যমে গণমানুষের পাশে রয়েছেন সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •