প্রিয় চৌফলদন্ডীবাসী
আসলামু আলাইকুম/আদাব

“মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার নিয়ে কিছু কথা”

দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে করোনা ভাইরাস জণিত দুর্যোগে মানবিক সহায়তা কার্যক্রমের আওতায় বিগত ২ রা মে উপজেলা থেকে একটি চিঠি আসে যার মর্ম ছিল মাসিক ২০ কেজি হারে খাদ্য সহায়তা প্রদানের লক্ষ্য ৯২১ জনের তালিকা প্রেরণ। নির্দেশনা ছিল ইতিপূর্বে যারা বিভিন্ন উপকারভোগী যেমন হতদরিদ্র (১০ টাকা মূল্যের চালের উপকারভোগী) ভিজিডির উপকারভোগী, বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধীভাতাসহ অন্যান্য উপকারভোগী বাদ দিয়ে ভিক্ষুক, দোকানদার, দরিদ্র, কৃষক, ভ্যান চালক, চালক, জেলে, নন এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, ইমাম, মোয়াজ্জেম, খাদেম, নিম্ন আয়ের কর্মজীবী এর নাম সংযুক্ত করে তালিকা প্রস্তুত করে ৩ রা মে মধ্যে দাখিল করতে হবে। সময় মাত্র ১ দিন। সে মোতাবেক মেম্বারদের নির্দেশনা দিয়ে প্রত্যকে বরাদ্দ দেওয়া হয়।
উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এর পরামর্শে তালিকা সংগ্রহ এবং উপজেলার প্রদত্ত সার্ভারে ডাটা এন্ট্রি চলছে। ইউএনও, পিআইও, চেয়ারম্যান, ট্যাগ অফিসার, মেম্বার, সচিব, উদ্যোক্তাসহ রোজার মাসে রাত জেগে ডাটা এন্ট্রি শেষ করি।
সার্ভারে জমাকৃত তালিকা দ্বৈততা পরিহার এবং ভুল সংশোধনের জন্য উপজেলা থেকে অনেকের মোবাইল নাম্বারে কল করে সত্যতা যাচাই করা হয়। যা লোকে মূখে জানতে পারি। উপজেলা প্রশাসনের নিয়োগকৃত সরকারী জনবল দ্বারা অধিকতর যাচাই বাছাইয়ের জন্য ইউনিয়নের প্রতি ঘরে ঘরে গিয়ে তথ্য যাচাই করেন।
যাচাইয়ের পর অনেকের তথ্য (জাতীয় পরিচয়পত্র, মোবাইল নাম্বার ইত্যাদি) সংশোধনের প্রয়োজন দেখা দেই। পরবর্তীতে তথ্য সংশোধন এর সার্ভার লিংক দিলে সরকারী দায়িত্ব প্রাপ্ত অফিসারের উপস্থিতিতে তথ্য সংশোধন করা হয়। ৯২১ জনের তথ্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে উপজেলা সার্ভারে জমা হয়। ঐ তালিকায় মোবাইল নাম্বার, জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার, ব্যক্তির নাম একাধিকবার ব্যবহার হয় নাই।
তালিকা প্রস্তুত এরই মধ্যে গণমাধ্যমে খবর আসে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা মহামারী করোনার ক্রান্তিকালে সহায়তা ও ঈদ উপহার স্বরুপ ২৫০০ টাকা করে উপকারভোগীর মোবাইল নাম্বারে (মোবাইল ব্যাংকিং- বিকাশ, রকেট, নগদ, শিওর ক্যাশ) EFT এর মাধ্যমে প্রদান করবেন।

বিগত নির্বাচনে আমি আমার পরম শ্রদ্ধেয় চাচা বর্তমান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, সাবেক জনপ্রিয় সাংসদ বর্ষীয়ান নেতা, জনাব খান বাহাদুর মোস্তাক আহমদ চৌধুরী এবং তাঁহার সহধর্মীনী, এই জনপদের নারী জাগরনের অগ্রদুত, বর্তমান মাননীয় সাংসদ (মহিলা আসন-৮) আমার মাতৃতল্য জনাবা কানিজ ফাতেমা আহমেদ এর সার্বিক সহযোগিতা ও পরামর্শে বাংলাদেশ আওয়ামীগের দলীয় মনোনীয়নে নির্বাচন করে আপনাদের এবং সাবেক এবং বর্তমান সাংসদদ্বয়ে প্রত্যক্ষ ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে আজ পর্যন্ত আপনাদের সেবায় নিয়োজিত আছি।
আমি মানুষ আমার ভুল হতে পারে,বলতে দ্বিদা নাই আমি পড়া লেখা জানি না, তাই কলম ঘুরিয়ে মানুষ কে টকাতে জানি না, আমি সৎ, আমি লোভী নয়, আমি সহজ আমি ভাব নিতে জানি না।

বর্তমান করোনা পরিস্থিতে সরকার প্রদত্ত সকল প্রকার ত্রাণ ও সুযোগ সুবিধা সরকারী নির্দেশনা মোতাবেক, আইন মেনে ন্যায্য দাবীদারে হাতে পৌছাতে গিয়ে হয়তো আমি আমার পার্টির অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের কিছু কিছু নেতাকর্মীর অনৈতিক আবদার রক্ষা করতে পারি নাই, আবার আমি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মত একটা জনপ্রিয় রাজনৈতিক দলের তৃনমুল পর্যায়ের নেতৃত্বদানকারী কর্মী হিসাবে দলের ভিতরে যেমন আমার নেতৃত্বে বিরুদ্ধে
প্রতিযোগিতা থাকবে তেমনি দলের বাইরেরও কিছু প্রতিযোগী থাকবে, এটা স্বাভাবিক একটা রাজনৈতিক প্রক্রিয়া।
ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমার ও চৌফলদন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের বিষয়ে অসত্য মিথ্যা বানোয়াট তথ্য দিয়ে আমারই দলের কিছু স্বার্থনেষী অপরাজনীতির খেলায় তৎপর হতে দেখা যায়।

এখন আমার কথা হচ্ছে আমরা রাজনীতি করি কার জন্য, নিশ্চয় মানুষের জন্য, আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার কারীগণতো সবাই উচ্চ শিক্ষত, আপনাদের শিক্ষিত ডিগ্রি গুলোর প্রতি সম্মান জানিয়ে বলছি, আল্লাহ চাইলে রাজনীতি করার অনেক সময় পাবেন। কিন্তু দেশের এই ক্রান্তিকালে মানুষকে মিথ্যা বুঝিয়ে মিথ্যা প্রচার করে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করিয়েন না।

আমি আপনাদের কে আগেও বলেছি এখনো বলছি সত্য জেনে বলুন, এবং প্রচার করুন। আমি লেখা পড়া না জানা মানুষ হলেও মূর্খ নই, তাই অন্যের সম্মান নষ্ট করার অপতৎপরাতায় আজও লিপ্ত হলাম না।

যথাযথ কর্তৃপক্ষের নির্দেশ পাওয়া গেলে ইউএনও স্যারের স্বাক্ষরিত তালিকা জনসম্মূখে নিশ্চয় প্রকাশ করবো ইনশাল্লাহ।
আর যদি কোন অতি উৎসাহীর তালিকার প্রয়োজন হয় ইউএনও স্যারের কার্যালয় হতে সংগ্রহ করতে পারেন। আপনারাতো শিক্ষিত মানুষ ইউএনও স্যারের কার্যালয় নিশ্চয় ছিনবেন।

পরিশেষে আমার শান্তি প্রিয় চৌফলদন্ডীবাসীকে কোন মিথ্যা বানোয়াট অপপ্রচারকারী অসত্য কথায় বিভ্রান্ত না হওয়ার আকুল আবেদন এবং অগ্রীম ঈদ মোবারক, ঘরে থাকুন সুস্থ থাকুন এই প্রত্যাশায়
আমি আপনাদেরই

ওয়াজ করিম বাবুল
চেয়ারম্যান
৬নং চৌফলদন্ডী ইউনিয়ন পরিষদ
সদর, কক্সবাজার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •