মো. নুরুল করিম আরমান, লামা প্রতিনিধি:
এবার বান্দরবানের লামা উপজেলায় এক পুলিশ সদস্যের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পজেটিভ এসেছে, তার শরীরে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

এনিয়ে উপজেলায় মোট করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ালো সাত জনে। বৃহস্পতিবার সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক মোহাম্মদ রোবীন।
তিনি জানান, লামা থানায় কর্মরত পুলিশের কনস্টেবল সরওয়ার আলমের (৩৫) সর্দি, কাশি, জ্বর ও গলা ব্যথা অনুভূত হলে গত ১৬ মে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দেওয়ার পর পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। বুধবার দিনগত রাতে সরওয়ার আলমের নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদনে করোনা পজেটিভ আসে। ১৪দিন পর পরীক্ষার জন্য পূণরায় তার নমুনা সংগ্রহ করা হবে। এর আগে কোন ধরণের উপসর্গ ছাড়াই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদুল হক ও আয়া মততাজ বেগমের করোনা নমুনা পরীক্ষায় পজেটিভ আসে। বর্তমানে তারা উভয়ে সুস্থ ও হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন। এর পরে সরই ইউনিয়নের বাইঘ্যার দোকান কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রোভাইডার আবুল বশরও করোনায় আক্রান্ত হন।

এছাডা লামা সদর ইউনিয়নের মেরাখোলা মুসলিম পাড়ায় আক্রান্ত রাশেদা বেগম ২৩দিন আইসোলেশনে থাকার পর সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরেন এবং ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের গয়ালমারা এলাকায় আক্রান্ত দুই জনের দ্বিতীয় নমুনা পরীক্ষায় রিপোর্ট নেগেটিভ আসে বলে জানান স্বাস্থ্য পরিদর্শক মো. নাজিম উদ্দিন। এ বিষযে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ- জান্নাত রুমি বলেন, প্রাণঘাতী করোনা সংক্রমন এডাতে আক্রান্ত পুলিশ সদস্যকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইশোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। .

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •