মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা নয়াবাজার নিবাসী মরহুম হাজী আলী মিয়া দফাদারের কনিষ্ঠ পুত্র বর্তমানে শহরের তারাবনিয়া ছরার স্থায়ী বাসিন্দা আলহাজ্ব খোরশেদ আলম ২০মে বুধবার ভোর ৪টার দিকে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি গত ১৭মে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে তার শরীরের স্যাম্পল টেস্টে দিয়েছিলেন। ২০মে বুধবার বিকেলে খোরশেদ আলম এর টেস্ট রিপোর্ট ‘পজেটিভ’ পাওয়া যায়। পরে বুধবার রাত্রে মরহুম খোরশেদ আলমের বাড়ি ও তার চলাচল এলাকা লকডাউন (Lockdown) করে দেওয়া হয়। বিষয়টি কক্সবাজার পৌরসভার ৭ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আশরাফুল হুদা ছিদ্দিকী জামশেদ সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন।

খোরশেদ আলম হলেন কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া দ্বিতীয় রোগী। বুধবার কক্সবাজার সদর উপজেলায় পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়া ১১জন করোনা রোগীর মধ্যে মরহুম খোরশেদ আলমের রিপোর্টও রয়েছে। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া খোরশেদ আলম কক্সবাজার শহরের
রুমালিয়ার ছরা জামে মসজিদের সাবেক খতিব মরহুম আলহাজ্ব মাওলানা ছৈয়দ করিম এর কন্যার স্বামী। ২০মে বুধবার যোহরের নামাজের পর তারাবনিয়া ছরা করবস্থান মাঠে মরহুম খোরশেদ আলম এর জানাজার নামাজ স্বাভাবিক মৃত্যুর মতো করে পড়ানো হয়। জানাজা শেষে রুমালিয়ার ছরা জামে মসজিদ সংলগ্ন কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •