মুহিববুল্লাহ মুহিব, সিবিএন :

মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য। একটু সহানুভুতি কি মানুষ পেতে পারে না…ও বন্ধু। উপ-মহাদেশের বিখ্যাত শিল্পি ভুপেন হাজারিকার এ গান হয়তো আজও কিছু মানুষের মনে নাড়া দেয়। তারই প্রমান কক্সবাজারের ‘আল গণি’ রেস্টুরেন্টের মালিক রুবেল উদ্দিন উপেল।

বিশ্ব মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে যখন কক্সবাজার এক প্রকার অচল। ঠিক তখনি শহরের ছিন্নমুল ও অসহায় মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ করছে আল গণি কর্তৃপক্ষ। প্রতিদিন ৪ শতাধিক মানুষকে খাবারবার দেয়া হয়। করোনার গত ৫০ দিনে তারা শহরের ২২ হাজার ৮০০ ছিন্নমুল, হতদরিদ্র ও অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করেন।

একইভাবে বুধবার (২০ মে) সেহেরীর খাবার পেয়েছেন প্রায় দুই শতাধিক মানুষ। তারা বলছেন, কক্সবাজার জেলায় আরও বড় বড় রেস্টুরেন্ট রয়েছে। তারা কিন্তু এ সংকটে এগিয়ে আসেনি। শুধু আল গণি খাবার পরিবেশন করে যাচ্ছে। প্রতিদিনই আল গণির খাবারের অপেক্ষায় থাকি।

সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে করোনা মহামারীতে অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোর কথা জানিয়ে ‘আল গণি’ রেস্টুরেন্টের মালিক, সাবেক ছাত্র নেতা ও তরুণ উদ্যোক্তা রুবেল উদ্দিন উপেল বলেন, করোনা সংকটের শুরু থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হতদরিদ্র মানুষের পাশে দাড়ানোর কথা বলেছিলেন। সে থেকে ক্ষুদ্র আয়োজন নিয়ে আজ ৫০ তম দিনে এসব মানুষকে খাবার দিতে পেরেছি। শুধু ভেবেছি আমাকে দেখে অনেকে এগিয়ে আসবে। সে জায়গা থেকে এখনো এসব মানুষের মাঝে রান্না করে খাবার বিতরণ অব্যাহত রেখেছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •