মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী’র পুত্র আরাফ করিম (৮), কন্যা অনন্যা করিম (৯), সহকারী হাল কাকরার শাহাবুদ্দিন (৫৫), চকরিয়ার জমজম হাসপাতালে ফজলুল করিম সাঈদী থেকে টেস্টের জন্য রক্ত নেওয়া নার্স ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের দ্বিগরপানখালীর রিংকু করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। শনিবার ১৬মে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে তাদের শরীরের স্যাম্পল টেস্টে করোনা ভাইরাস সনাক্ত করা হয়।

এছাড়া কাকরা ইউনিয়নের শাকের মোহাম্মদ চর (এসএম চর) গ্রামের একই পরিবারের স্বামী (৮০), স্ত্রী (৬০) ও কন্যা (২২) এর শরীরে একইদিন করোনা ভাইরাস জীবাণু সনাক্ত করা হয়েছে। ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ভেরেন্ডী বাজারের পূর্বে ৪২ বছর বয়সী আরো একজন পুরুষসহ মোট ৮ জন করোনা ভাইরাস জীবাণু আক্রান্ত রোগী সনাক্ত করা হয়।

চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী’র শরীরে আগেই করোনা ভাইরাস সনাক্ত করা হয়।এনিয়ে, করোনার হটস্পট হিসাবে পরিচিত চকরিয়া উপজেলায় মোট ৬০জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলো।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •