মো. নুরুল করিম আরমান, লামা প্রতিনিধি :

ছাগল গরুর পেটে মানুষের বাচ্চা সহ কতনা অদ্ভুত ঘটনা ইতোপূর্বে শোনা গেছে। কিন্তু গৃহ পালিত মুরগি আম আকৃতির ডিম পাড়ার ঘটনা শুনা যায়নি। অদ্ভুত এ ঘটনাটি ঘটেছে বান্দরবানের লামা পৌরসভা এলাকার চাম্পাতলী পাড়ার বাসিন্দা ও উপ-সহকারী প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা মহসিন রেজার ঘরে। অদ্ভুত জিনিসের প্রতি মানুষের আগ্রহ চিরদিনের। তাই উৎসুক জনতা ওই ডিম দেখতে গত দুদিন ধরে ভিড় জমাচ্ছেন প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার বাড়িতে। প্রাণী বিশেষজ্ঞদের মন্তব্য, ইতোপূর্বে এরকম আকৃতির ডিম তারা দেখেননি।

মুরগির মালিক মহসিন রেজা জানান, ডিম পাড়া কালো রংয়ের মুরগিটির বয়স এক বছর। প্রথমদিকে মুরগিটি স্বাভাবিক আকৃতির ডিম পারতো। কিন্তু গত তিনদিন ধরে মুরগিটি ঠিক আমের আকৃতির ডিম পাড়ছে। তবে ডিমের ভেতর কুসুম অন্য ডিমের মতো স্বাভাবিক। মুরগিটি এ পর্যন্ত ৩টি ডিম পেরেছে আমের আকৃতির। আম আকৃতির ডিম পাড়ার খবরটি ছড়িয়ে পড়লে এক নজর ডিমটি দেখার জন্য বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছেন স্থানীয়রা। তিনি আরো বলেন, আম আকৃতির ডিম পাড়ার বিষয়টি প্রাণিসম্পদ বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। অদ্ভুত আকৃতির ডিমগুলো গবেষণার জন্য ঢাকায় প্রাণী সম্পদ কার্যালয়ে পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে লামা উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ড. মুহাম্মদ ইসহাক আলী বলেন, এ রকম ঘটনা খুবই কম। তবে মুরগির খাবারে ক্যালসিয়ামের পরিমাণ কম হলে বা ডিম পাড়ার আগ মুহুর্তে কোন সমস্যা হলে এমন ডিম পাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাছাড়া অন্য সমস্যার কারণেও এ রকম হতে পারে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •