এম.মনছুর আলম,চকরিয়া :
কক্সবাজারের চকরিয়ায় একদিনে প্রকাশিত ল্যাব টেস্টে নতুন করে দুই শিশুসহ আরো ১৫ করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে। এনিয়ে উপজেলায় করোনা সংক্রমণ কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫১ জনের মধ্যে দাড়িয়েছে। তৎমধ্যে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী হাসপাতালের আইসোলেশন ও হোম আইসোলেশন থেকে বর্তমানে ১০জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়িতে রয়েছেন।
শুক্রবার (১৫মে) সন্ধ্যায় করোনা আক্রান্ত পজিটিভ নতুন পনের রোগীর বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: মোহাম্মদ শাহবাজ।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান কর্মকর্তা ডা: মোহাম্মদ শাহবাজ কাছে নতুন আক্রান্ত রোগীর বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন, বৃহস্পতিবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে বৃহস্পতিবার বেশকিছু লোকের কাছ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ল্যাবে পাঠানো হয়েছিল। আজ শুক্রবার প্রকাশিত রিপোর্টের মধ্যে দুই শিশুসহ নতুন পনের ব্যক্তির করোনা ভাইরাস সংক্রমণ কোভিড-১৯ আক্রান্ত হিসেবে পজিটিভ রিপোর্ট আসে।
কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে জানাগেছে, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ল্যাবে করা শুক্রবার প্রকাশিত ১৮৪ জনের ল্যাব টেস্টে ২১ জনের করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোগে পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তৎমধ্যে
কক্সবাজার সদর ১, চকরিয়া ১৫, পেকুয়া ১, কুতুবদিয়া ১ ও রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৩ জন।
কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সহকারি অধ্যাপক (ট্রপিক্যাল মেডিসিন ও সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ) ডা: মোহাম্মদ শাহজাহান নাজির এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
চকরিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রাপ্ত তথ্যমতে, চকরিয়া উপজেলায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণ (কোভিড-১৯) ল্যাব পরীক্ষায় নতুন ১৫ করোনা পজিটিভ সনাক্ত হওয়া ব্যক্তিরা হলেন,  মালুমঘাটের ২জন, ডুলাহাজারার ৭জন ,  ,হালকাকারার ২ জন, কাকারার ১জন, বিমানবন্দর পাড়ার ১জন, কাজীরপাড়া পৌরসভার ১ জন, মাস্টারপাড়া পৌরসভা ১জন।
কোভিড-১৯ পজিটিভ হওয়ার মধ্যে একজন উপজেলা চেয়ারম্যানের অফিস সহকারি ও অপরজন উপজেলা চেয়ারম্যান ব্যক্তিগত সহকারী রয়েছে।
এ পর্যন্ত চকরিয়া উপজেলায় মোট ৫১ জন করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) আক্রান্ত রোগী হিসেবে সনাক্ত হয়েছে। নতুন করে করোনা আক্রান্ত হওয়া রোগীদের চিহ্নিত করে তাদের বাড়ি লগডাউন করার ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে নিশ্চিত করেছেন হাসপাতাল ও উপজেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষ।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.হাবিবুর রহমান বলেন, অসাবধানতা ও বেপরোয়া ঘোরাঘুরি করার কারণে চকরিয়ায় নতুন করে আরো পনের জন করোনা আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের পরিচয় চিহ্নিত করে তাদের বাসা-বাড়ি খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে লগডাউন করা হবে বলে তিনি জানান।
করোনায় আক্রান্ত বিষয়ে জানতে চাইলে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ সামসুল তাবরীজ বলেন, সামাজিক দুরত্ব না মেনে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে যত্রতত্র ঘোরাঘুরি ও গণজামায়েত করার দায়ে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রাদুর্ভাবে দিন দিন আক্রান্ত রোগী সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। এ ভাবে ক্রমান্বয়ে করোনা আক্রান্ত রোগী বাড়তে থাকলে বড় ধরণের বিপদের সম্মুখীন হবে পুরো উপজেলায়। এখনো সময় আছে দেশের প্রতিটি মানুষকে আরো সচেতন হতে হবে।
নতুন করে আক্রান্ত পনের রোগীর এলাকা ও তাদের প্রত্যেকের বাসা-বাড়ি চিহ্নিত করে দ্রুত লগডাউন করার পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এছাড়াও আক্রান্ত ব্যক্তিদের সাথে সংস্পর্শে থাকা প্রত্যেক ব্যক্তিদের খোঁজ নিয়ে তাদেরকে হোম কোয়ারেন্টাইনে নেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে বলেও তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •