প্রশান্ত দে, আলীকদম ##
বান্দরবানের আলীকদমে তিন্দু পাড়ায় (কাঞ্চন পাড়া) মাঙলং মুরুং নামে এক ব্যক্তি ভাল্লুকের আক্রমণে শিকার হন। আক্রমণে ঠোঁটের এক পাশে ছিঁড়ে গিয়েছে। দাঁত ও মাড়ি বাহিরে ছামড়া বেরিয়ে গেছে। মাথার অর্ধেক চামড়া ছেড়ে ঝুলে পড়েছিলে।

এমতাবস্থায় মাঙলং মুরুংকে আলীকদম হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেয়া হয়।

উপসহকারী মেডিকেল অফিসার আমিনুল ইসলাম প্রাথমিক চিকিৎসা করেন। রোগীর অবস্থা খারাপ হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেলে রেফার করা হয়।

আর্থিক সমস্যা ও করোনা লকডাউনের কারণে চট্টগ্রামে নিয়ে যেতে ব্যর্থ হন স্বজনেরা।

কোন উপায়ান্তর না দেখে আলীকদম উপজেলা স্বাস্থ্য ও প. প. কর্মকর্তা ডাক্তার মাহতাব উদ্দিন আর নিজেই সিদ্ধান্ত নেন।

প্রায় দেড় ঘন্টা পর ভাল্লুকের আক্রমণের শিকার রোগীর বিভিন্ন অংশে সেলাই কাজ সফলভাবে সম্পন্ন করেছেন। যেটি পাহাড়িদের চিকিৎসাসেবায় বিরল।

আর সেলাইতে সহযোগী ছিলেন- উপসহকারী মেডিকেল অফিসার রনি কর্মকার, ওয়ার্ড বয় আবুল কালাম ও মো: শাহআলম। সেলাই শেষে রোগীকে ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ডাক্তার মাহতাব উদ্দিন জানান, আল্লাহ পাকের অশেষ রহমতে খুবই সুন্দর সেলাই হয়েছে। আশা করি দ্রুত সুস্থ হয়ে যাবে।

সকলের সহযোগিতা পেলে সীমিত সুবিধার মধ্যেও আরো অনেক সেবা দিতে পারবে আলীকদম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।- জানালেন ডাক্তার মাহতাব।

রোগীর আত্মীয় স্বজনরা জানিয়েছে, মাঙলাং মুরুং গত শুক্রবার বিকালে তার হারিয়ে যাওয়া গরু খুজঁতে বনে গেলে সেখানে তাকে ভাল্লুকে আক্রমন করে। পরবর্তীতে আশে পাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে রাত্রে অনুমান ৮ টা দিকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •