রাজু দাশ ,চকরিয়া  :
কক্সবাজার চকরিয়ায় সরকারের নির্দেশনা অমান্য করে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে চলছে বাজার। ঘরে থাকছেনা লোকজন। হাটেবাজারে ফ্রি ভাইরাস নিয়ে কে বা কারা ঘুরছে তা কেহই জানেনা। করোনার দাপটে কম্পিত আজ সর্বসাধারণ।

বুধবার ১৩ মে চকরিয়া পৌরশহরে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, সামাজিক দূরত্ব না মেনে বেপরোয়া লোকজন ঘাড়ে করোনা বয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। ক্রমেই খারাপের দিকে দিন দিন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।

বর্তমান পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে চকরিয়ায় করোনা মহামারীর দিকে যেতে পারে বলেও আশঙ্কা করছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।

উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কছির বলেন,
মানুষ ঘরে থাকছেনা। সামাজিক দূরত্ব মানছেনা। হাটে-বাজারে বেপরোয়া ভাবে চলাফেরা করছে। এ ক্ষেত্রে আমি বলবো, মানুষ কেনো ঘর থেকে বের হচ্ছে সেটা খোঁজ নিয়ে দেখুন। কারণ তাদের ঘরে খাবার নেই। পেটে ক্ষুধার জ্বালা। খাবারের সন্ধানে তারা ঘর থেকে বের হচ্ছে। ঘরে খাবার না থাকলে মানুষ বাঘের সামনে গিয়েও খাবার সংগ্রহ করতে ভয় পায়না। ক্ষুধার জ্বালা বড় জ্বালা।
এলাকায় একাধিকবার ত্রাণ দেয়া হলেও তারা ত্রাণ পাচ্ছেন না। যার কারণে বাধ্য হয়ে তারা খাবারের সন্ধানে অবাধে চলাচল করতেছে

কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান পৌর আওয়ামী সভাপতি জাহিদুল ইসলাম লিঠু বলেন, বিশ্বজুড়ে এই মহামারী চলছে। এর ঢেউ এসে লেগেছে চকরিয়ায়। করোনার দাপটে আমরা কম্পিত। আতঙ্কে দিন কাটাই। আমরা যতটুকু নিরাপদে থাকতে পারি ততই মঙ্গল। হাটে-বাজারে, রাস্তাঘাটে মানা হচ্ছেনা সামাজিক দূরত্ব। আমরা জানিনা কার শরীরে ভাইরাস আছে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে জনসাধারণকে সতর্ক থাকতে। সরকারের পাশাপাশি আমাদেরও নিজ নিজ অবস্থান থেকে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে বলে জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •