অনলাইন ডেস্ক : বাংলাদেশি বাবা-মেয়ের ডাক্তার যুগল ডা. সমীর কুমার সাহা ও ডা. সেঁজুতি সাহার নেতৃত্বে সফলভাবে করোনাভাইরাস জিনোম সিকোয়েন্স উদঘাটন করেছেন।

তাদের এই উদ্ভাবন বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া ভাইরাসটির এ দেশে গতি প্রকৃতি নির্ণয় করতে এবং দেশের জনগণের জন্য প্রতিষেধক তৈরির সম্ভাবনাকে সহায়তা করবে।

চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ডা. সমীর কুমার সাহা ও ঢাকা শিশু হাসপাতালে চাইল্ড রিসার্চ ফাউন্ডেশনের গবেষক ডা. সেঁজুতি সাহা যৌথভাবে তাদের কৃতিত্বের কথা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন। সিএইচআরএফের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

ডা. সেঁজুতি সাহার তত্বাবধানে চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশনের (সিএইচআরএফ) আট সদস্যের একটি গবেষক দল জিনোম সিকোয়েন্সের ম্যাপিংয়ের কাজ করে।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব বেড়েই যাচ্ছে। সরকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ সকল ধরনের অপ্রয়োজনীয় পরিষেবা ও পরিবহন সেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

ধাপে ধাপে সাধারণ ছুটি বাড়িয়ে ১৬ মে পর্যন্ত করা হলেও পরিস্থিতি ভালো না হয়ে দিনদিন খারাপের দিকেই যাচ্ছে।

মঙ্গলবার পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একদিনে ১১ জনের মৃত্যুসহ মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫০ জনে। আর নতুন করে আরও ৯৬৯ জন আক্রান্ত হওয়ায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা হলো ১৬ হাজার ৬৬০ জন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •