বার্তা পরিবেশক :
বিগত ৮ মার্চ প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী পাওয়ার পর সারাদেশে করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ এর কারনে আজ পর্যন্ত লকডাউন চলমান । যার ফলে কক্সবাজার জেলার বাহিরে বিভিন্ন শহরে অধ্যায়নরত অসংখ্য শিক্ষার্থী আটকে পড়ে যায় । যেহেতু লকডাউনে গাড়ি চলাচল সম্পূর্ন বন্ধ এবং এক শহর থেকে অন্য শহরে যাতায়তে রয়েছে নিষেদ্ধাজ্ঞা সে জন্য বহু কক্সবাজার জেলার শিক্ষার্থীদের বাড়ি ফেরা হয়নি।

নিজ নিজ একালায় ত্রান পৌঁছালেও যেহেতু অন্য শহরে বসবাস করা শিক্ষার্থীরা উক্ত এলাকার ভোটার না, সে জন্য তারা পায়নি কোন সহায়তা । এছাড়াও এমন অনেক শিক্ষার্থী আছেন যারা মেসে থাকেন এবং আয়ের উৎস টিউশনি কিন্ত লকডাউনের কারনে তারা প্রায় আজ ঘর বন্ধি ।

এমন অবস্থায় কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাখাওয়াত হোছাইনের

( প্রয়াত আইনজীবী এড. এ.কে আহম্মদ হোছাইন, সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগ ও সাবেক আইনজীবী সমিতির সভাপতি এর কনিষ্ঠ পুত্র)

উদ্যোগে চট্টগ্রামে কুতুবদিয়ার আটকে পড়া শিক্ষার্থীদের মাঝে উপহার সামগ্রী পৌঁছে দেন কুতুবদিয়া উপজেলার উপ-প্রচার সম্পাদক সেলিম রেজা ।

এই ব্যাপারে সেলিম রেজা বলেন , চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় আমাদের কক্সবাজারের সন্তানরা রয়েছে কিন্ত হাজার সমস্যা থাকা সত্ত্বেও এমন অবস্থায় তারা কেউ কক্সবাজার নিজ বাড়িতে যেতে পারছে না। তবে আমাদের শাখাওয়াত ভাইকে সমস্যাটা বলার সাথে সাথে তিনি আমাদের কক্সবাজারের শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন । এছাড়াও তিনি প্রচার বিমুখ হওয়ায়;নিরবে কাজ করে যাচ্ছেন প্রতি নিয়ত। নিরবে কক্সবাজারস্থ বিভিন্ন শহরে অনেক ছাত্রলীগ কর্মীর মেসের সিট ভাড়া দিতে সমস্যা হলে তিনি তাদের পাশে থেকেছেন ।

মুঠোফোনে শাখাওয়াত হোছাইনের সাথে কথা হলে তিনি প্রতিনিধিকে বলেন , কক্সবাজার জেলার প্রতিটা ছাত্রলীগ কর্মী সহ সকল অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের পাশে থাকা আমার নৈতিক দায়িত্ব । তাদের সমস্যা ও বিপদে যতটুকু আমার সামর্থ আছে,তা নিয়ে পাশে থাকব সব সময়।

এছাড়াও তিনি বলেন , এই অবস্থায় কক্সবাজারস্থ কোন শিক্ষার্থী বাইরের শহরে অবস্থান করায় , যদি কোন সহায়তা প্রয়োজন হয় তবে আমার ব্যক্তিগত ফোন নাম্বার ০১৮২৪৮০৬৮৮৯ অথবা ০১৮৮৫৩৮৬৮৬২/০১৮৫৭৬৭১৯৪৩ নাম্বারে যোগাযোগ করার অনুরোধ করছি । যথা সাধ্য উপহার পৌঁছে যাবে আপনার কাছে ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •