মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি :

মুন্সীগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক নাজমুল হোসেনের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে আজ সংবাদ সম্মেলন করেছেন তিনি। সংবাদ সম্মেলন থেকে তার বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ ভিত্তিহীন এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে দাবি করেন তিনি। আজ (শুক্রবার) সকালে তার বাসভবনে আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা উপস্থিত। শারীরিক অসুস্থতার কারণে তার পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে শোনান তার বড় ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান শামীম।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন,গত কয়েকদিন আগে অখ্যাত একটি পত্রিকায় নাজমুল হোসেনকে রাজাকারপুত্র দাবি করা হয়, প্রতিবেদনে বলা হয় অবৈধ ব্যবসা করে নাজমুল হোসেন হকার থেকে কোটিপতি বনে গেছেন। তাদের এই দাবি একেবারে মিথ্যা-অবান্তর, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত উল্লেখ করে তিনি বলেন প্রতিবেদক কারো দ্বারা প্রভাবিত হয়ে মিথ্যা তথ্য দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করেছেন। প্রতিবেদনটিতে দাবি করা হয় নাজমুল হোসেনের বাবা মোহাম্মদ আলী বেপারী রাজাকার ছিলেন কিন্তু রাজাকারের কোন তালিকায় তার নাম নেই আর স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা বলছেন তিনি রাজাকার ছিলেন না। পাশাপাশি প্রতিবেদনে আরো দাবি করা হয়েছিল তিনি ভূমিদস্যু, মাফিয়া সম্রাট যা একেবারে মিথ্যা।

এদিকে প্রতিবেদনটিতে গজারিয়া উপজেলার মুক্তিযুদ্ধকালীন কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম বীর প্রতীকের একটি বক্তব্য ছাপানো হয়। যেখানে বলা হয়েছে রফিকুল ইসলাম বীর প্রতীক দাবি করেছেন নাজমুল হোসেনের বাবা রাজাকার ছিলেন। বিষয়টির সত্যতা জানতে বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম বীর প্রতীকের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান এ ধরনের কোনো বক্তব্য তিনি দেননি তার বক্তব্য বিকৃত করে প্রকাশ করা হয়েছে। স্থানীয় আরেক মুক্তিযুদ্ধ মোঃ হাবিবুর রহমান জানান, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি নাজমুল হোসেনের বাবাকে খুব কাছ থেকে দেখেছেন, অত্যন্ত সজ্জন ব্যক্তি মুক্তিযুদ্ধে তাঁর ভূমিকা ছিল সাধারণ আর দশটা মানুষের মতো। তিনি কোনোভাবেই যুদ্ধাপরাধের সাথে সংশ্লিষ্ট ছিলেন না বলে দাবি করেন তিনি। বালুয়াকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শামসুল হুদা খান মাখন বলেন, নাজমুল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত।

একজন সফল ব্যবসায়ী নাজমুল হোসেন একাধিকবার জনপ্রতিনিধি হয়েছেন পাশাপাশি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছেন। একটি বিশেষ মহল সুপরিকল্পিতভাবে রাজনৈতিকভাবে তাকে ঘায়েল করার জন্য নগ্নভাবে মিথ্যাচার করছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •