প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ডাঃ ওসমান সরওয়ারকে ফাঁসাতে তৎপর ষড়যন্ত্রকারীরা। কিছু রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ এবং সন্ত্রাসী ও মামলাবাজরা আবারো মিথ্যা মামলায় ফাসাঁনো পায়তারা করছে বলে গনমাধ্যম কর্মীদের জানিয়েছেন শাপলাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ডাঃ ওসমান সরওয়ার।

তিনি সংক্ষিপ্ত এবং প্রেস ব্রিফিংএ জানান, গত ২ মে সন্ধ্যায় আমাদের এলাকায় মেহেদী নামের তরুনকে নারী সংঘঠিক কারনে নিজেদের মধ্যে মারামারি করে মর্মান্তিক ভাবে হত্যা করা হয়। আমি এই হত্যা কান্ডের তীর্ব নিন্দা জানাই এবং দ্রæত সমস্ত হত্যাকারীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তিদাবী করি। ঘটনার সময় আমি শাপলাপুর ইউনিয়নের পরিষদ ভবনে বর্তমানে করোনা পরিস্থিতিতে বিশেষ ত্রাণ কার্যক্রম বিষয়ক সভায় ছিলাম। সেখানে ইফতারের সময় হলে আমি শাপলাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এড,আবদুল খালেক চৌধুরী ও স্থানীয় মহিলা মেম্বার এক টেবিলে বসে ইফতার করেছি। পরে আমরা ঘটনা শুনেছি। অথচ সেই ঘটনায় বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বিশেষ করে ফেইসবুকে আমাকে জড়িয়ে কিছু মিথ্যা বানোয়াট এবং মানহানীকর কথা বার্তা ছড়িয়ে দেয় আমাদের শত্রæপক্ষ। মূলত শাপলাপুর ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের মেম্বার আবদুস সালাম আমার বিরুদ্ধে গভীর ষড়ডন্ত্রে লিপ্ত তিনি সহ তার কিছু কুচন্ত্রি মহল আমাকে মেহেদী হত্যা মামলায় ফাঁসাতে তৎপরতা শুরু করেছে বলে জানা গেছে যা লজ্জা জনক। আসলে এই এলাকায় আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করাটাই আমাদের অপরাধ। এর আগেও একটি হত্যায় মামলায় আমাকে জড়িয়ে অনেক হয়রানী করেছিল আবদুস সালাম গং রা। আল্লাহর রহমতে সরকারি সব সংস্থার প্রতিবেদনে আমি নির্দোশ প্রমানিত হয়ে সত্যের বর্হিপ্রকাশ হয়েছে। সে জন্য সরকারি সকল সংস্থার কাছে চীর কৃতজ্ঞ। আমি শুধু আওয়ামীলীগের নয় ছোট বেলা থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ^াষী হয়ে অসংখ্য সামাজিক সংগঠন করে এসেছি বর্তমানেও রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কমিটির উপজেলা টিম লিডার হিসাবে কাজ করছি। পরিশেষে আমার বিরুদ্ধে সমস্ত ষড়যন্ত্র বিষয়ে প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্টদের সতর্ক থাকার আহবান জানিয়ে শেষ করছি জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •